নাজাত ও পানাহ চাইলেন মুসল্লিরা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১:৪৬ এএম, ২১ জানুয়ারি ২০১৮
নাজাত ও পানাহ চাইলেন মুসল্লিরা

আমিন আমিন ধ্বনিতে মুখরিত টঙ্গীর তুরাগতীর। ধর্মপ্রাণ লাখো মুসল্লির এই গণজমায়েত শেষ হলো আখেরি মোনাজাতের মধ্যদিয়ে। আজ বেলা ১০টা ১৯ মিনিটে শুরু হওয়া এ মোনাজাত চলে ১০টা ৪৫ মিনিট পর্যন্ত। মোনাজাতের পুরো সময় দু’নয়নের জলে মহান আল্লাহর কাছে নাজাত ও পানাহ চান মুসল্লিরা।

গাজীপুরের টঙ্গীর তুরাগতীরে শুরু হওয়া মুসলমানদের দ্বিতীয় বৃহত্তম এই জমায়েতে প্রথম পর্বের ন্যায় এবারও আরবি এবং বাংলায় মোনাজাত পরিচালনা করেন বাংলাদেশর কাকরাইল মসজিদের ইমাম তাবলিগের অন্যতম শুরা সদস্য হাফেজ মাওলানা মুহাম্মদ জুবায়ের।

Amin1

মোনাজাতে বিশ্ব মানবতার শান্তি ও আখেরাতের নাজাতের জন্য দোয়া হয়। যেসব মুমিন-মুসলমান পৃথিবী থেকে পরোলোক গমন করেছেন, তাদের কবরে শান্তির জন্য প্রার্থনা করা হয়। বিশেষ করে ইহলোক ত্যাগকারী মা-বাবার জন্য বারবার ক্ষমা প্রার্থনা করা হয়। আমিন আমিন ধ্বনিতে মুখরিত হয়ে ওঠে ইজতেমা ময়দান। অনেকে উচ্চ স্বরে কাঁদতে থাকেন।

এর আগে মোনাজাতে অংশ নিতে ইজতেমা প্রাঙ্গণে ঢল নামে লাখো মুসল্লির। ময়দানের আশেপাশের রাস্তায়ও অবস্থান নেন বিপুলসংখ্যক মানুষ। এই মোনাজাতে অংশ নিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ।

Amin1

সকাল সাড়ে ৭টা থেকে হেদায়েতি বয়ান শুরু হয়। বয়ান করেন বাংলাদেশের মাওলানা আব্দুল মতিন। ভোর থেকেই শীত উপেক্ষা করে লাখো মুসল্লি সড়ক-মহাসড়কে হেঁটে ও ট্রেনে করে টঙ্গীর ইজতেমা ময়দানে গিয়ে সমবেত হন। বিপুলসংখ্যক নারী মুসল্লিও মোনাজাতে অংশ নিতে ইজতেমার আশেপাশের সড়কে সকাল থেকেই অবস্থান নেন।

বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব শেষ হওয়ার পর চার দিন বিরতি দিয়ে গত শুক্রবার (১৯ জানুয়ারি) শুরু হয় ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব। আজ আখেরি মোনাজাতের মধ্যদিয়ে শেষ হলো এবারের বিশ্ব ইজতেমা।

এমএ/বিএ/এমএস