গ্রামোফোনে ধারণকৃত সকল নজরুল সংগীত সংগ্রহের চেষ্টা চলবে

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:০৮ পিএম, ২৮ জুন ২০১৯

সংস্কৃতিবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ হোসেন বলেছেন, কবি নজরুল ইনস্টিটিউটের উদ্যোগে আদি গ্রামোফোন রেকর্ডে ধারণকৃত ১ হাজার ৮০০টি সংগৃহীত নজরুলসংগীতের মধ্যে গুণগতমানের ভিত্তিতে ১ হাজার ২৩৮টি গানের ডিভিডি ও ৫টি স্বরলিপি গ্রন্থ প্রকাশ করা হয়েছে। নজরুলের আদি গ্রামোফোন রেকর্ডে ধারণকৃত অবশিষ্ট নজরুল সংগীত সংগ্রহে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা গ্রহণ করা হবে। এ ব্যাপারে বাংলাদেশ থেকে মন্ত্রণালয়ের আর্থিক পৃষ্ঠপোষকতায় একজন বিশিষ্ট নজরুল গবেষককে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে পাঠিয়ে অবশিষ্ট গানগুলোকে সংগ্রহে পদক্ষেপ নেয়া হবে।

আজ শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর জাতীয় জাদুঘরের কবি সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে কবি নজরুল ইনস্টিটিউটের উদ্যোগে ‘আদি গ্রামোফোন রেকর্ডে ধারণকৃত ১২৩৮টি নজরুল সংগীতের ডিভিডি ও ৫টি স্বরলিপি গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে কবি নজরুল ইনস্টিটিউট নতুনভাবে যাত্রা শুরু করেছে। কবি নজরুল ইনস্টিটিউটের নতুন নকশা অনুযায়ী ভবন নির্মাণ প্রকল্পের ডিপিপি (উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাবনা) বর্তমানে সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ে রয়েছে। কয়েক মাসের মধ্যে এ ভবনের নির্মাণ কাজ শুরু করা যাবে বলে আশা করা হচ্ছে।’

তিনি বলেন, এবারের নজরুল জন্মজয়ন্তীর জাতীয় অনুষ্ঠান অন্যান্য বারের তুলনায় অনেক বেশি সুন্দর ও গোছানো হয়েছে। আগামীতে নজরুল জন্মজয়ন্তীর জাতীয় অনুষ্ঠান আরো বেশি সুন্দর ও আড়ম্বরপূর্ণ হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন প্রতিমন্ত্রী।

কবি নজরুল ইনস্টিটিউট ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারপারসন ও জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আলোচনা করেন বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরের মহাপরিচালক মো. রিয়াজ আহম্মদ এবং নজরুল গবেষক ও সরকারের যুগ্মসচিব এ এফ এম হায়াতুল্লাহ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন কবি নজরুল ইনস্টিটিউটের নির্বাহী পরিচালক মো. আব্দুর রাজ্জাক ভূঞা।

অনুষ্ঠানে একক সংগীত পরিবেশন করেন শিল্পী সেলিনা হোসেন, জোসেফ কমল রড্রিক্স, জান্নাত-এ-রুম্মান তিথী ও শাহিনা আক্তার পাপিয়া।

এমইউ/এসআর/এমকেএইচ