ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় উদ্ধারকাজে সক্রিয় পুলিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:২৩ পিএম, ১০ নভেম্বর ২০১৯

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় উদ্ধারকাজ শুরু করেছে বাংলাদেশ পুলিশ। ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবিলায় পুলিশের কেন্দ্রীয় নির্দেশনা ও পরিকল্পনার অংশ হিসেবে স্থাপিত কন্ট্রোল রুমে আসা তথ্যে দ্রুতই ত্রাণ বিতরণ, চিকিৎসা সহায়তা ও সড়কে উপড়েপড়া গাছ সরিয়ে যাতায়াত ব্যবস্থা সচল কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে পুলিশ।

ঘূর্ণিঝড়পরবর্তী উদ্ধারকাজ সম্পন্ন করতে আগে থেকেই বাংলাদেশ পুলিশের সংশ্লিষ্ট ইউনিটগুলো বিশেষ টিম প্রস্তুত রেখেছিল। ঘূর্ণিঝড় বুলবুল এলাকা অতিক্রমের সঙ্গে সঙ্গে সংশ্লিষ্ট এলাকার পুলিশ টিম শুরু করে উদ্ধার কার্যক্রম।

police4

রোববার সন্ধ্যায় পুলিশ সদরদফতরের এআইজি (মিডিয়া) সোহেল রানা জানান, সহায়তা কার্যক্রমের অংশ হিসেবে বুলবুলের আঘাতে পড়ে কিংবা ভেঙে যাওয়া গাছ অপসারণ, ক্ষতিগ্রস্ত বাড়িঘর মেরামত, ঘূর্ণিঝড়কবলিত মানুষের মধ্যে ত্রাণবণ্টন, সাধারণ মানুষকে আশ্রয়কেন্দ্র থেকে পুনরায় নিজ বাড়িতে পৌঁছে দেয়া, আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করে হাসপাতালে ভর্তি করা ও সড়ক মেরামতসহ বিভিন্ন মানবিক কার্যক্রম পরিচালনা করছে পুলিশ সদস্যরা। পাশাপাশি দুর্যোগকালীন কোনো দুষ্কৃতকারী যেন অপরাধ সংঘটিত করতে না পারে- সে ব্যাপারে সতর্ক দৃষ্টি রাখছে। মানুষের জীবন ও সম্পদের পূর্ণ নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ পুলিশবদ্ধ পরিকর।

তিনি বলেন, ঘূর্ণিঝড় বুলবুল আঘাত হানবে, এমন সংবাদ প্রাপ্তির পরপরই সম্ভাব্য সব ধরনের জনসম্পৃক্ত কর্মসূচি গ্রহণ করতে উপকূলীয় সকল জেলার পুলিশ ইউনিটকে বিশেষ নির্দেশনা প্রদান করে পুলিশ সদরদফতর। মাঠপর্যায়ের ইউনিটগুলো সেই নির্দেশনা মোতাবেক সাধারণ মানুষের জীবন ও সম্পদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে বহুমুখী কার্যক্রম সম্পাদন করে চলছে।

police4

মানুষ যাতে ঘূর্ণিঝড়ের ব্যাপারে সতর্ক হয় এবং দ্রুততার সঙ্গে নিরাপদ আশ্রয় গ্রহণ করে এ জন্য পুলিশের পক্ষ থেকে ব্যাপক প্রচারের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। মাইকিং, লিফলেট বিতরণের পাশাপাশি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে গিয়ে পুলিশ সদস্যরা সাধারণ মানুষকে সচেতন করেছেন। স্বেচ্ছাসেবকদের সঙ্গে নিয়ে তারা সাধারণ মানুষদের আশ্রয়কেন্দ্রে পৌঁছে দিয়েছেন। আশ্রিত মানুষের মধ্যে সরকার প্রদত্ত ত্রাণের সুষ্ঠু বণ্টনের জন্য সব ধরনের রকমের সহযোগিতা প্রদান করেছে পুলিশ।

ঘূর্ণিঝড় চলাকালীন পরিস্থিতি মোকাবিলায় পুলিশের জেলা ও থানা পর্যায়ের ইউনিটে কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছিল- যার কার্যক্রম এখনও চলমান। তারা সার্বক্ষণিকভাবে পরিস্থিতি নজরদারি করে মাঠে কর্মরত পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে সমন্বয় করছে এবং প্রয়োজনীয় নির্দেশনা প্রদান করছে। জরুরি প্রয়োজনে দ্রুত সাড়াদানের জন্য প্রতিটি পুলিশ লাইন্সে প্রয়োজনীয় সংখ্যক রিজার্ভ ফোর্স কুইক রেসপন্স টিম হিসেবে রাখা হয়েছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

police4

এছাড়াও যেকোনো জরুরি প্রয়োজনে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের কন্ট্রোল রুমে ০১৭৬৯৬৯০০৩৩, ০১৭৬৯৬৯০০৩৪ নম্বরে এবং জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ এ যোগাযোগ করার পরামর্শ প্রদান করা হয়েছে।

জেইউ/বিএ/এমকেএইচ