বিডিআরসিএস ও এমআরসির সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:৪৭ পিএম, ১২ নভেম্বর ২০১৯

অভিবাসন বিষয়ে পারস্পারিক সহযোগিতা বৃদ্ধি ও ভবিষ্যৎ রূপরেখা প্রণয়নের লক্ষ্যে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি (বিডিআরসিএস) ও মালদ্বীপ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির (এমআরসি) মধ্যে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে। বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির পক্ষে সোসাইটির মহাসচিব মো. ফিরোজ সালাহ্ উদ্দিন ও মালদ্বীপ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির পক্ষে সেক্রেটারি জেনারেল আয়েশা নুরা মোহাম্মদ এতে স্বাক্ষর করেন। গত ১০ নভেম্বর রাতে মালদ্বীপের রাজধানী মালেতে অভিবাসন বিষয়ক মানবিক সংলাপ শেষে এই সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর হয়। উল্লেখ্য, মালদ্বীপে অবস্থানরত অভিবাসীর মধ্যে ৫৭ শতাংশ বাংলাদেশের নাগরিক।

এর ফলে মালদ্বীপে অবস্থানরত বাংলাদেশি অভিবাসীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিতকরণসহ অভিবাসন বিষয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে পারস্পারিক সহযোগিতা বৃদ্ধি পাবে।

সমঝোতা সাক্ষরের সময় বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির চেয়ারম্যান হাফিজ আহমদ মজুমদার ছাড়াও মালদ্বীপ সরকারের অথনৈতিক উন্নয়ন বিষয়ক মন্ত্রী ফায়াজ ইসমাইল ও মৎস ও সমুদ্র সম্পদ ও কৃষি বিষয়ক মন্ত্রী যাহা ওয়াহিদসহ মালদ্বীপ রেড ক্রিসন্টে সোসাইটি, মালদ্বীপ সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি এবং আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংস্থার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

মালদ্বীপ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি ও বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির যৌথ উদ্যোগে এবং ইতালিয়ান রেড ক্রস ও আইএফআরসির সহযোগিতায় মালদ্বীপের রাজধানী মালেতে দুদিনব্যাপী (৯-১০ নভেম্বর) অভিবাসন বিষয়ক মানবিক সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়। সংলাপে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মালদ্বীপ সরকারের অর্থনৈতিক উন্নয়ন মন্ত্রী ফায়াজ ইসমাইল।

মালদ্বীপের মৎস্য, সামুদ্রিক সম্পদ ও কৃষিমন্ত্রী যাহা, বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির চেয়ারম্যান হাফিজ আহমদ মজুমদার, মহাসচিব মো. ফিরোজ সালাহ্ উদ্দিন, ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব রেড ক্রস অ্যান্ড রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটিজের বাংলাদেশ প্রধান আজমত উল্লা, ইতালিয়ান রেড ক্রস সোসাইটির দক্ষিণ এশিয়ার আঞ্চলিক প্রতিনিধি রিকার্ডো জাগার্টন ছাড়াও মালদ্বীপের জাতিসংঘ প্রতিনিধি, মানবিক কমিশনের প্রতিনিধি, ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনালের প্রতিনিধিবৃন্দ, রেড ক্রস ও রেড ক্রিসেন্ট মুভমেন্টের প্রতিনিধি এবং বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্টসহ বিভিন্ন ন্যাশনাল সোসাইটির প্রতিনিধিরা এ সংলাপে উপস্থিত ছিলেন ।

সংলাপের প্রধান অতিথি মালদ্বীপ সরকারের অর্থনৈতিক উন্নয়ন মন্ত্রী ফায়াজ ইসমাইল তার বক্তব্যে অভিবাসীরা যেসব বাধার সম্মুখীন হন সেগুলো মোকাবিলা করার লক্ষ্যে সার্বিক সহযোগিতা প্রদানের আশ্বাস ব্যক্ত করেন।

বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির চেয়ারম্যান হাফিজ আহমদ মজুমদার বলেন, “মালদ্বীপে অভিবাসীদের ৫০ শতাংশেরও বেশি হচ্ছে বাংলাদেশি। মালদ্বীপ রেড ক্রিসেন্টের সাথে কাজ করতে পেরে আমরা খুশি। আশা করছি, সম্মিলিতভাবে অভিবাসীদের মানবিক সহায়তা প্রদানে আমরা সচেষ্ট হব।”

তিনি বলেন, এই সমঝোতা স্মারক একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ। যার মাধ্যমে উভয় দেশের রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি ছাড়াও উভয় রাষ্ট্র উপকৃত হবে। তিনি বলেন, বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি দীর্ঘদিন যাবৎ বাংলাদেশ সরকার, মালদ্বীপ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি ও তার সরকারের সাথে দ্বি-পাক্ষিক আলোচনা চালিয়ে আসছিল। তারই ফল আজকের এই সমঝোতা স্মারক।

মালদ্বীপ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির সেক্রেটারি জেনারেল আয়েশা নুরা মোহাম্মদ বলেন, আমরা নিরপেক্ষভাবে সংকট অথবা শান্তিকালীন সময়ে কাজ করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ এবং অভিবাসী ও ক্ষতিগ্রস্থদের মর্যাদা, সুরক্ষা এবং নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আমাদের এই চেষ্টা ভবিষ্যতে অব্যাহত থাকবে।

ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব রেড ক্রস অ্যান্ড রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটিজের বাংলাদেশ প্রধান আজমত উল্লা বলেন, আন্তর্জাতিক রেড ক্রস এবং রেড ক্রিসেন্ট আন্দোলনের এই প্রচেষ্টা অভিবাসীদের পাশাপাশি তাদের শিশু ও প্রবীণ আত্মীয়-স্বজনকে সহযোগিতা প্রদান করে সামাজিক সম্প্রীতি বৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখবে।

ইতালিয়ান রেড ক্রস সোসাইটির দক্ষিণ এশিয়ার আঞ্চলিক প্রতিনিধি রিকার্ডো জাগার্টন বলেন, এই সংলাপ দুই দেশের রেড ক্রিসেন্টের মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতা বৃদ্ধি করে অভিবাসীদের সুরক্ষায় কাজ করবে।

এনএফ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]