১৬ দিনেও মিললো না আইসিইউ, আ.লীগ নেতার মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম
প্রকাশিত: ০৮:২৮ পিএম, ০২ জুলাই ২০২০

চট্টগ্রামে হাসপাতাল থেকে হাসপাতালে ঘুরে মৃত্যুর ঘটনা এখন নিত্যদিনের। সাধারণ মানুষের বিনাচিকিৎসায় মৃত্যুর মিছিলের এই তালিকায় এখন মাঝে মধ্যেই যুক্ত হচ্ছে সরকার দলীয় নেতাকার্মীর নামও।

অভিযোগ উঠেছে, নগরের বেসরকারি পার্কভিউ হাসপাতালে গত ১৬ দিন ধরে চিকিৎসা নেওয়া এক আওয়ামী লীগ নেতা আজ আবারও শ্বাসকষ্ট নিয়ে আইসিইউতে ভর্তি হওয়ার জন্য গেলে করোনা সন্দেহে তাকে আইসিইউ দেয়া হয়নি। আর আইসিইউ না পেয়ে হাসপাতালের জরুরি বিভাগেই ওই নেতার মৃত্যু হয়েছে।

মৃত আওয়ামী লীগ নেতার নাম মোহাম্মদ হোসেন প্রকাশ বাঁচা সওদাগর (৬৫)। তিনি চট্টগ্রামের কর্ণফুলী উপজেলার ৪নং শিকলবাহা ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি।

মৃতের স্বজনেরা জানিয়েছেন, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে তারা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

তার ভাতিজা ইসহাক ইমন জানান, গত ১৫ জুন পার্কভিউ হাসপাতালে শ্বাসকষ্টের সমস্যা নিয়ে ভর্তি হতে যান মোহাম্মদ হোসেন। কিন্তু নানা অজুহাতে সেখানে ভর্তি নেওয়া হচ্ছিল না। এরপর বিভিন্ন তদবিরের পর ভর্তি করে সিসিইউতে নিয়ে যাওয়া হয়। নমুনা পরীক্ষা দিলে তার করোনা নেগেটিভ আসে। এরপর কিছুটা সুস্থ বোধ করলে বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু ২৬ জুন আবারও তিনি অসুস্থ বোধ করলে রাত ১২টার দিকে পুনরায় পার্কভিউ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। মধ্যরাতেও ব্যস্ততার অযুহাতে প্রায় চার ঘণ্টা পর সাড়ে ৪টার দিকে সিসিইউতে নিয়ে যাওয়া হয় তার চাচাকে। সেখানে থাকার পর কিছুটা সুস্থ হলে বুধবার (১ জুলাই) ছাড়পত্র দিলে আবারও বাড়ি নিয়ে যাওয়া হয়।

ইসহাক ইমন বলেন, ‘সন্ধ্যায় বাড়ি নিয়ে যাওয়ার পর আজ বৃহস্পতিবার ভোরে তিনি আবারও অসুস্থ হয়ে পড়েন। শ্বাসকষ্ট বেড়ে যাওয়ায় অক্সিজেন সাপোর্ট দিয়ে সকাল ৭টার দিকে তাকে ফের পার্কভিউ হাসপাতালে নিয়ে যাই। জরুরি বিভাগের সামনের একটি বেডে চাচাকে শুইয়ে রেখে আইসিইউ’র জন্য কখনো চার তলা, কখনো ৮তলায় ছুটছি আমরা। ৮তলায় আইসিইউ খালি থাকলেও সংশ্লিষ্ট চিকিৎসক আশরাফ করোনা রোগী সন্দেহে আইসিইউ দিতে অস্বীকার করেন। দুইঘণ্টা ধরে অনেক দেনদরবার করেও আইসিইউ মেলেনি। শেষ পর্যন্ত বিনাচিকিৎসকায় সকাল ৯টার দিকে চাচা মৃত্যুবরণ করেন।’

অবহেলাজনিত কারণে মৃত্যুর অভিযোগে ডা. আশরাফসহ পার্কভিউ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে পাঁচলাইশ থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান ইমন।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে পার্কভিউ হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রেজাউল করিমের মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

আবু আজাদ/এসএইচএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]