সংস্কার হচ্ছে ৬৪ জেলার টেনিস কোর্ট

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:১৯ পিএম, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১

জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের আর্থিক সহায়তায় দেশের ৬৪ জেলায় বিদ্যমান টেনিস কোর্ট সংস্কার ও অবকাঠামো আধুনিকায়নের প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। ইতোমধ্যে বিশেষ প্রকল্প গ্রহণ করে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের অর্থায়নে দেশের ২৫ জেলার টেনিস কোর্টের সংস্কার ও উন্নয়ন কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

এছাড়া বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ লেফটেন্যান্ট শেখ জামালের নামে নামকরণকৃত একটি কমপ্লেক্সে ১৫০ জনের আবাসন ব্যবস্থা, অডিটোরিয়াম, রুফটপ রেস্টুরেন্ট, সুইমিংপুল, দ্বিতল পার্কিং সুবিধাসহ বহুতল ভবন নির্মাণ করা হবে।

বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত ‘যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটি’র ১৫তম বৈঠকে এসব তথ্য জানানো হয়।

কমিটির সভাপতি আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকবের সভাপতিত্বে কমিটির সদস্য যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল, আব্দুস সালাম মুর্শেদী, জুয়েল আরেং, মাশরাফি বিন মর্তুজা এবং জাকিয়া তাবাসসুম বৈঠকে অংশ নেন।

বৈঠকে ক্রীড়া পরিষদ জানায়, শেখ জামালের নামে ওই কমপ্লেক্স তৈরি হলে আবাসন ও ট্রান্সপোর্টেশন খরচ কমিয়ে আন্তর্জাতিক জুনিয়র ও প্রফেশনাল প্রতিযোগিতা আয়োজন আরও সহজ হবে। বছরব্যাপি বিনা প্রতিবন্ধকতায় টেনিস প্রশিক্ষণ ও প্রতিযোগিতার আয়োজন করার জন্য ফেডারেশনের আটটি টেনিস কোর্টে শেড নির্মাণ করা হলে সব মৌসুমেই টেনিস ম্যাচ আয়োজন সম্ভব হবে।

প্রস্তাবিত বহুতল ভবনের কক্ষসমূহে খেলোয়াড়দের আবাসনের ব্যবস্থা করা হলে সেই খরচ দিয়েই আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতার আয়োজন করা সম্ভব হবে। এশিয়ান টেনিস ফেডারেশনের খেলোয়াড়দের প্রশিক্ষণ, কোচদের প্রশিক্ষণ, রিজিওনাল কোচেস কনফারেন্স আয়োজন, রিজিওনাল মিটিংসহ টেনিসের নানাবিধ ওয়ার্কশপ, সেমিনার ইত্যাদি আয়োজন সম্ভব হবে।

জাতীয় পর্যায়ের প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী খেলোয়াড়দের আবাসন সঙ্কট নিরসন হবে। ডেভিস কাপ, ফেড কাপসহ জুনিয়র প্রতিযোগিতাসমূহ বাংলাদেশে নিয়মিত আয়োজন করা, জুনিয়র টেনিস ইনিশিয়েটিভ প্রোগ্রামের আওতায় দেশব্যাপি টেনিস প্রশিক্ষণ কার্যক্রম সম্প্রসারণ করাসহ বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ সম্ভব হবে বলে জানায় পরিষদ।

কমিটি নড়াইল জেলার দুটি ক্রিকেট মাঠ বিশেষ বরাদ্দের মাধ্যমে জরুরিভিত্তিতে সংস্কারের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করে।

বৈঠকে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের জেলা ও উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তাদের বিশেষ কোনো কারণ ব্যতিত পাঁচ বছর অন্তর অন্যত্র বদলি বাধ্যতামূলক করার জন্যও কমিটি সুপারিশ করে।

এছাড়া জেলা পর্যায়ে টেনিস কোর্টগুলো সাধারণ খেলোয়াড়দের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া, আন্তর্জাতিক মানের প্রশিক্ষণ ও অন্যান্য সব সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধিসহ প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের সুপারিশ করা হয়।

বৈঠকে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব, বিভিন্ন সংস্থা প্রধানসহ যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় এবং সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এইচএস/এএএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]