আ.লীগ নেতার মৃত্যুতে সৌদির খামিস মুশাইতে শোকসভা

ক ম জামাল উদ্দীন ক ম জামাল উদ্দীন , সৌদি আরব
প্রকাশিত: ১১:৩৩ এএম, ৩১ জানুয়ারি ২০১৯

চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, ফটিকছড়ি থেকে দুইবার নির্বাচিত সাবেক সাংসদ, সাবেক রাষ্ট্রদূত, রূপালী ব্যাংকের সাবেক পরিচালক, বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব নুরুল আলম চৌধুরীর মৃত্যুতে শোকসভা পালন করেছে বঙ্গবন্ধু পরিষদ, আছির প্রদেশ কেন্দ্রীয় কমিটি।

৩০ জানুয়ারি সৌদি আরবের খামিস মুশাইতের সংগঠনের স্থায়ী কার্যালয়ে সভাপতিত্ব করেন ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আলহাজ্ব নুরুল আবছার ও সঞ্চালক ছিলেন হোসাইন মো. কামাল চৌধুরী। প্রধান অতিথি ছিলেন সফিউল আজম।

প্রধান বক্তা সাবেক ছাত্রনেতা সালাউদ্দীন, বিশেষ অতিথি আহমেদ আলী নঈমী, আজাদ রহমান, ওমর ফারুক। অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন রাশেদুল আলম, মহিউদ্দীন, নুর কাশেম, আমান উল্লাহ, ফারেস উদ্দীন, আব্দুল জাব্বার, দিদারুল ইসলাম প্রমুখ।

বক্তারা বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদের বর্ণাঢ্য জীবনের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন। বলেন, জাতি একজন রাজনৈতিক উজ্জ্বল নক্ষত্র হারালো। বরেণ্য এ রাজনীতিক ছাত্র জীবনেই আওয়ামী রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত হন।

raid

তিনি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন। ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে বীর বাঙালির মুক্তির সংগ্রামে অকুতভয় সৈনিক হিসেবে তিনি দেশের জন্য লড়েছিলেন। ১৯৭৩ সালে বঙ্গবন্ধুর পার্লামেন্টে মাত্র ২৭ বছর বয়সে তিনি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদ করতে গিয়ে তিনি কারা নির্যাতিতও হয়েছিলেন।

শেষে মহান নেতার আত্মার মাগফিরাত কামনা কর দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া পরিচালনা করেন মাওলানা মো. ইউসুফ। সভাপতির সমাপনী বক্তব্যের মাধ্যমে সভার সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

উল্লেখ্য, রোববার (২৭ জানুয়ারি) ভোর সাড়ে ৫টায় নগরীর পার্ক ভিউ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তিনি ২ পুত্র ও ১ কন্যাসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন রেখে গেছেন। অসুস্থতাজনিত কারণে তিনি গত কিছুদিন ধরে পার্কভিউ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

এমআরএম/জেআইএম

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]