পাকিস্তান বিশ্বকাপ জিততে পারে : মালিক

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:২৮ পিএম, ২১ জানুয়ারি ২০১৯

পাকিস্তানকে বলা হয় 'আনপ্রেডিক্টেবল' দল। বড় টুর্নামেন্টে তাদের কখনই গণনার বাইরে রাখা যায় না, সে দল যতই খারাপ অবস্থায় থাক। বর্তমান পাকিস্তান দলটি শক্তিমত্তায় অনেক বেশি এগিয়ে নেই। তাদের তাই বিশ্বকাপের ফেবারিটদের তালিকায়ও রাখা হচ্ছে না। তবে দলের অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার শোয়েব মালিক মনে করছেন, ২০১৯ বিশ্বকাপ জিততে পারে পাকিস্তান।

মালিকের মতে, পাকিস্তানের এই দলটিরও বিশ্বকাপ জেতার সামর্থ্য আছে। তবে মাঠের পারফরম্যান্সটাকেই আসল মনে করছেন তিনি। মালিক বলেন, ‘হ্যাঁ, আমাদের এই দলটির বিশ্বকাপ হাতে তোলার সামর্থ্য আছে। তবে সামর্থ্য আপনাকে কিছু জেতাবে না, পারফরম্যান্স জেতাবে। আমাদের এই সামর্থ্য আছে কারণ এই দলে সেরা ওয়ানডে বোলার এবং ব্যাটসম্যান আছে। ব্যক্তিগতভাবে আমি ২০১৯ বিশ্বকাপকে স্মরণীয় করার জন্য মুখিয়ে আছি।’

ওয়ানডে র্যাংকিংয়ে পাকিস্তান এখন বেশ পিছিয়ে। তারা আছে র্যাংকিংয়ের পাঁচ নাম্বারে। তবে দলটি পাকিস্তান বলে কথা! তাদের উপরের র্যাংকিংয়ে থাকা দক্ষিণ আফ্রিকাকে (চার নাম্বারে) তাদেরই মাটিতে শনিবার সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে উড়িয়ে দিয়েছে সরফরাজের দল।

আইসিসির টুর্নামেন্টে তো এই পাকিস্তানকে নিয়ে বাজি ধরার উপায়ই নেই। ২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির কথাই ধরুন না। পাকিস্তানকে গণনায়ই রাখা হয়নি সেবার। অথচ ইংল্যান্ডের মাটি থেকে ট্রফি হাতে নিয়েই দেশে ফেরে সরফরাজের তরুণ দল। ২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপও হবে ইংল্যান্ডে। মালিকের কথা মেনে পাকিস্তানকে তাই তালিকায় রাখতেই হবে।

৩৬ বছর বয়সী মালিকের এই টুর্নামেন্টই হতে পারে শেষ। আগেভাগেই জানিয়ে রেখেছেন, ওয়ানডে বিশ্বকাপের পর বিদায় বলতে পারেন। তবে এখন একটু দোটানায় আছেন মালিক। পরের বছর (২০২০ সালে) আছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ।

মালিক তাই বলছেন, ‘আমার সিদ্ধান্ত ফিটনেসের সঙ্গে সম্পর্কিত নয়। তবে এটা নিয়ে অবশ্যই ভাবতে হবে। আসল ব্যাপার হলো নিজের শেষ ম্যাচেও আমি দেশের হয়ে মূল্যবান অবদান রাখতে চাই। সেইসঙ্গে পরিবার আর খেলার মধ্যে ভারসাম্যও দরকার। এই মুহূর্তে আমার সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের চিন্তা নেই। তবে আমরা সবাই জানি, ২০২০ সালে আমার ফেবারিট ফরমেট টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আছে। যদি আরেকটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পাই, তবে কে জানে কি হবে!’

এমএমআর/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :