যে কারণে এখনো আইপিএল শিরোপা জেতেনি ব্যাঙ্গালুরু

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:০৩ পিএম, ১৭ মার্চ ২০১৯

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) ক্রিকেটের প্রতি আসরেই তারকাবহুল দল গড়ে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু এবং প্রতি আসরেই টুর্নামেন্ট শেষে ব্যর্থতাই সঙ্গী হয় বিরাট কোহলিদের। এখনো পর্যন্ত আইপিএলের শিরোপা ছুঁয়ে দেয়া হয়নি ব্যাঙ্গালুরুদের।

২০০৯ সালে টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় আসরেই শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট মাথায় পরার খুব কাছে গিয়েও ফিরতে হয়েছে রানারআপ হয়ে। সবমিলিয়ে এখনো পর্যন্ত এগারো আসরের মধ্যে তিনবার সর্বোচ্চ রানারআপ হওয়াই ব্যাঙ্গালুরুর সেরা সাফল্য।

অথচ প্রতিবছরই বিরাট কোহলির সঙ্গে এবি ডি ভিলিয়ার্স, ক্রিস গেইল বা ডেল স্টেইনদের দেশি-বিদেশি ক্রিকেটারদের নিয়ে গড়া ব্যাঙ্গালুরুকে ধরা টুর্নামেন্টের শিরোপার সবচেয়ে বড় দাবিদার। তা সত্ত্বেও আইপিএলের গত দুই আসরে তাদের সেরা সাফল্য কি-না ষষ্ঠ হওয়া।

২০১৮ সালে ছয়ে থেকে টুর্নামেন্ট শেষ করার আগে ২০১৭ সালে বিরাট কোহলির দল ছিলো সবার নিচে, ৮ নম্বরে। কী কারণে হচ্ছে না শিরোপা জয়? পাওয়া হচ্ছে না শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট? ব্যাঙ্গালুরুবাসীসহ বিশ্ব ক্রিকেটে কোহলি-ডি ভিলিয়ার্সদের ভক্ত-সমর্থকদের নিত্যদিনের প্রশ্ন এটি। যে প্রশ্নের উত্তর মিলেছে দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলির জবানিতে।

নিজ দল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর নতুন মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন উদ্বোধনের সময় কোহলি বলেন, ‘ব্যর্থতা তখনই আসে যখন আপনি যথাযথ সিদ্ধান্ত নিতে ব্যর্থ হন। আমি এখানে বসে যদি বলি যে প্রতি মৌসুমেই আমাদের ভাগ্য খারাপ থাকে তবে সেটা মিথ্যা বলা হবে।’

‘আপনি নিজেই আপনার ভাগ্য নির্ধারণ করে থাকেন। আপনি নিজে যদি দুর্বল সিদ্ধান্ত নেন, উল্টোদিকে আপনার প্রতিপক্ষ উপযুক্ত সিদ্ধান্ত নিলে আপনি হারতে বাধ্য। একইভাবে আমরা যখন বড় ম্যাচে খেলতে নামি তখন আমাদের সিদ্ধান্তগুলো বেশিরভাগ সময়েই সঠিক থাকে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘তাই যেসব দল ঠিকঠাকভাবে সিদ্ধান্তগুলো নিয়ে থাকে, মূলত তারাই আইপিএল শিরোপা জিতে নেয়। যারা খুব বেশি ভয় পায় না, চাপের মধ্যেও নিজেদের ধরে রাখতে এবং কঠিন মুহূর্তে যথাযথ সিদ্ধান্তে পারে- অবশ্যই তাদের এটা পুরষ্কার পাওয়া উচিৎ, নয় কি?’

আইপিএলের গত আসরে ষষ্ঠ থেকে টুর্নামেন্ট শেষ করেছে ব্যাঙ্গালুরু। কিন্তু টুর্নামেন্ট শুরুর আগেই দলের পক্ষ থেকে ‘এবারের কাপ আমাদের’ নামে গান বের করা হয়েছিল। কোহলি মনে করেন মাঠের খেলার চেয়ে এসব নিয়ে ব্যস্ত থাকাটাও আসলে সঠিক কাজ নয়।

কোহলির ভাষ্যে, ‘আমরা গত আসরে একটা ব্যাপারে বুঝতে পেরেছি যে টুর্নামেন্ট শুরুর আগে আপনার এমন কোনো পরিস্থিতি তৈরি করা উচিৎ নয় যে সেখানে শুধু আপনিই খেলছেন, অন্যরা অংশ নিচ্ছে না। কারণ টুর্নামেন্টে আরও ৭টা দল অংশ নেয়। তাই আপনাকে বাস্তববাদী হতে হবে। এটা কখনোই এক দলের টুর্নামেন্ট নয়। আমার দৃষ্টিকোণ থেকে হয়তো আমি এটি এড়িয়ে চলতে পারবো। কিন্তু আপনি নিশ্চয়তা দিতে পারবেন না যে প্রত্যেকেই তা করতে পারবে। যার ফলে এটা মনের মধ্যে কাজ করতেই থাকে।’

এসএএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :