টটেনহ্যামের জয়, লিভারপুলের ড্র

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:০৪ পিএম, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭ | আপডেট: ০১:৫৫ পিএম, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭
টটেনহ্যামের জয়, লিভারপুলের ড্র

দীর্ঘদিন পর চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ফিরলো ইংল্যান্ডের অন্যতম সফল ক্লাব লিভারপুল; কিন্তু তাদের ফেরাটা খুব সুখকর হলো না। স্প্যানিশ ক্লাব সেভিয়া এফসির সঙ্গে ২-২ গোলে ড্র করলো অলরেডরা। অন্যদিকে জার্মান ক্লাব বরুশিয়া ডর্টমুন্ডকে ৩-১ গোলে হারিয়েছে আরেক ইংলিশ ক্লাব টটেনহ্যাম হটস্পার। ইতালিয়ান ক্লাব ন্যাপোলিকে ২-১ গোলে হারিয়েছে শাখতার দোনেৎস্ক।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বুধবার রাতে অন্য ম্যাচগুলোতে ৩-১ গোলে এফসি পোর্তোকে হারিয়েছে বেসিকতাস। এনকে মারিবরের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছে স্পার্তাক মস্কো। আরবি লেইপজিগের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছে এএস মোনাকো।

নিজেদের মাঠ অ্যানফিল্ডে শুরুতেই পিছিয়ে পড়ে লিভারপুল। খেলা শুরুর ৫ মিনিটের মধ্যেই অলরেড সমর্থকদের দারুণ এক ধাক্কা দেন সেভিয়ার উইসাম বেন ইয়েদার। শুরুর ধাক্কা সামলে নিতেই কষ্টকর হয়ে ওঠে লিভারপুলের জন্য। যদিও ২১ মিনিটে ব্রাজিলিয়ান তারকা রবার্তো ফিরমিনোর গোলে সমতায় ফেরে লিভারপুল। আলবার্তো মোরেনো ওয়ান-টু খেলে ক্রস বাড়ান সেভিয়ার বক্সে। শুধু পা ছুঁইয়ে গোলের আনুষ্ঠানিকতা সেরেছেন ফিরমিনো।

অলরেডদের জার্সি গায়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের অভিষেকেই গোলের দেখা পেলেন ফিরমিনো। লিভারপুলের হয়ে কোনো ব্রাজিলিয়ানের অভিষেকে গোল পাওয়া ষষ্ঠ খেলোয়াড় হলেন ফিরমিনো। কিন্তু এই ফিরমিনোই আবার লিভারপুলের জয় না পাওয়ার অন্যতম দায়ী ব্যক্তি। কারণ, ৪২ মিনিটে তিনি পেনাল্টি মিস করেন। তার শটটি পোস্ট কাঁপিয়ে দিয়ে বাইরে চলে যায়।

আবার ৭২ মিনিটে সেভিয়া যে সমতাসূচক গোলটি করেন, সেটির পেছনেও দায়ী ফিরমিনো। কারণ, তার ভুলেই গোল করে বসেন জোয়াকিন কোরিয়া।

২১ মিনিটে খেলা যখন ১-১ সমতায় উপনীত হয়, তখন ৩৭ মিনিটে লিভারপুলকে লিড এনে দেন মোহাম্মদ সালেহ। মিশরীয় এই ফরোয়ার্ড দুর্দান্ত খেলা উপহার দেন এদিন। ৪২ মিনিটে ফিরমিনো পেনাল্টি শটটি মিস না করলে তখনই ৩-১ ব্যবধানে এগিয়ে যেতে পারতো লিভারপুল।

নিজেদের মাঠে জার্মান ক্লাব বরুশিয়াকে পেয়ে যেন পুরো জ্বলে ওঠে টটেনহ্যাম। খেলার ৪ মিনিটেই টটেনহ্যামকে এগিয়ে দেন সং হিউয়েন মিন। জোড়া গোল করেন হ্যারি কেন। ১৫ মিনিটে একটি এবং ৬০ মিনিটে দ্বিতীয় গোল করেন তিনি। খেলার শেষ মুহূর্তে লাল কার্ড পেয়ে মাঠ থেকে বহিস্কার হন জ্যান ভার্টোঙ্গেন। বরুশিয়ার হয়ে একমাত্র গোলটি করেন অ্যান্ড্রি ইয়ারমোলেঙ্কো।

আইএইচএস/আরআইপি