অবিশ্বাস্য! ২০৬ তাড়া করেও জিতলো চেন্নাই

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৪৬ এএম, ২৬ এপ্রিল ২০১৮

এবারের আইপিএলে চেন্নাই সুপার কিংসের সামনে কোনো স্কোরই যেন বড় কোনো বাধা নয়। শুরুর দিকে একবার কলকাতা নাইট রাইডার্সের ২০২ রানের লক্ষ্যও তাড়া করে জিতে গিয়েছিল মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস। এবার বিরাট কোহলির রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর ছুঁড়ে দেয়া ২০৬ রানের লক্ষ্যও তাড়া করে অবিশ্বাস্যভাবে জিতে গেল চেন্নাই সুপার কিংস। ২ বল হাতে রেখেই ব্যাঙ্গালুরুকে তারা হারালো ৫ উইকেটের বড় ব্যবধানে।

অবিশ্বাস্য ব্যাটিং করেছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি আর আম্বাতি রাইডু। বড় রান তাড়া করতে নেমে বাকিদের ওপর কোনো চাপই পড়তে দিলেন না ধোনি এবং রাইডু। ৫৩ বলে ৮২ রান করে আউট হয়ে যান রাইডু। ৩টি বাউন্ডারির সঙ্গে ৮টি ছক্কার মারও মারেন তিনি।

রাইডু আউট হওয়ার পর চেন্নাই সমর্থকরা ভেবেছিল, বুঝি তাদের জয়ের আশা শেষ। কিন্তু ক্রিজে যে তখনও গ্রেট ফিনিশার আখ্যা পাওয়া মহেন্দ্র সিং ধোনি ছিলেন! উইকেট ধরে রাখাই নয়, মারমুখী ব্যাটিং করে দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে জুড়ি মেলা ভার তার। সে কাজটাই করলেন ধোনি।

৩৪ বলে শেষ পর্যন্ত ৭০ রানে অপরাজিত থাকলেন। শেষ ওভারে কোরি আন্ডারসনের চতুর্থ বলে দু’পা এগিয়ে গিয়ে অফ সাইড থেকে টেনে লেগ সাইডে ছক্কা মেরে দলকে জিতিয়েই মাঠ ছাড়লেন ধোনি। ১টি মাত্র বাউন্ডারির বিপরীতে তিনি মেরেছেন ৭টি ছক্কার মার। ৭ বলে ১৪ রানে অপরাজিত থাকেন ডোয়াইন ব্র্যাভোও। তিনিও ১টি করে চার এবং ছক্কার মার মারেন।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ডি ভিলিয়ার্স আর কুইন্টন ডি ককের ঝড়ে ২০৫ রানের বিশাল স্কোর গড়ে রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু। ৩০ বলে ৬৮ রান করেন ডি বিলিয়ার্স। ৩৭ বলে ৫৩ রান করেন কুইন্টন ডি কক। আজ যেন ছিল ছক্কার মিছিল। দু’দলের ব্যাটসম্যানরা মেরেছেন মোট ৩৩টি ছক্কার মার।

এই ম্যাচে জয়ের ফলে ৬ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে উঠে গেল চেন্নাই সুপার কিংস। ৬ ম্যাচে দুই জয়ে ৪ পয়েন্ট নিয়ে ৬ষ্ঠ অবস্থানে রয়েছে ব্যাঙ্গালুরু। কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের পয়েন্টও ১০। ৮ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ।

আইএইচএস/বিএ

আপনার মতামত লিখুন :