লিগ খেলতে না পেরে খারাপ লেগেছে

রফিকুল ইসলাম
রফিকুল ইসলাম রফিকুল ইসলাম , বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৯:৩৭ পিএম, ১৫ আগস্ট ২০২১

দীর্ঘ ৪২ বছর পর প্রিমিয়ার হকি লিগ খেলার অনুমতি পেয়েছেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর খেলোয়াড়রা। প্রতিষ্ঠানটির ৩০ জন খেলোয়াড়ের জন্য এটা আনন্দের খবর। মিলন হোসেন সেনাবাহিনীর সদস্য। অনুমতি পাওয়ার পর ১১ বছর পর তিনি লিগে খেলবেন এবার। সেই অনুভূতি প্রকাশ করেছেন জাতীয় দলের এই ফরোয়ার্ড।

জাগো নিউজ : সর্বশেষ কবে লিগ খেলেছেন?
মিলন হোসেন : ২০১০ সালে আবাহনীতে। আমি তখন বিকেএসপির শিক্ষার্থী। পরের বছর সেনাবাহিনীতে যোগ দেই।

জাগো নিউজ : ৭ বছর আগে জাতীয় দলে অভিষেক হয়েছে। জাতীয় দলের খেলোয়াড় কিন্তু লিগ খেলতে পারেননি, খারাপ লেগেছে নিশ্চয়ই?
মিলন হোসেন : তাতো অবশ্যই। ২০১৪ সালে এশিয়ান গেমস হকিতে আমি প্রথম জাতীয় দলের জার্সি গায়ে দেই। আমার সতীর্থরা দেশের সর্বোচ্চ লিগ খেলতো। আমি খেলতে পারতাম না।

জাগো নিউজ : লিগের খেলা দেখতেন?
মিলন হোসেন : আমি গ্যালারিতে বসে দেখতাম। সত্যি কথা কি, লিগ অনেক মিস করেছি। খেলতে না পেরে খুব খারাপ লেগেছে।

জাগো নিউজ : এখন তো আপনারা যারা সেনাবাহিনীতে আছেন তাদের জন্য হকি লিগে খেলার সুযোগ হলো। কেমন লাগছে?
মিলন হোসেন : খুবই ভালো লাগছে। কারণ, একজন খেলোয়াড় সব সময়ই লিগ খেলার জন্য অপেক্ষা করেন। বিদেশি খেলোয়াড় থাকেন। তাদের সঙ্গে ও বিপক্ষে খেলার সুযোগ পাওয়া যায়।

জাগো নিউজ : সর্বশেষ আবাহনীতে খেলেছেন। এবার শুনছি মোহামেডান ও আবাহনী বিগ বাজেটের দল করছে। তো আপনার কাছে নিশ্চয়ই অফার আছে?
মিলন হোসেন : অনেক ক্লাবই যোগাযোগ করছে। তবে এখনো কোনো ক্লাবের সঙ্গে ফাইনাল কিছু হয়নি।

জাগো নিউজ : অনেক দিন পর লিগ খেলার সুযোগ। সামনে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি।
মিলন হোসেন : চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আগে লিগটা আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সবাই ভাল পারফরম্যান্স করার চেষ্টা করবে।

জাগো নিউজ : ধন্যবাদ।
মিলন হোসেন : আপনাকেও ধন্যবাদ।

আরআই/আইএইচএস/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]