ভুয়া মেইলে রাবি শিক্ষকের নামে কুৎসা রটনা, থানায় জিডি

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ০৬:৩২ পিএম, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১
ফাইল ছবি

ভুয়া ইমেইল খুলে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ভূতত্ত্ব ও খনিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ড. সুলতান-উল-ইসলাম টিপুর নামে কুৎসা রটাচ্ছে একটি মহল। শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) এমন অভিযোগে ভুক্তভোগি ওই শিক্ষক সাধারণ ডায়েরী (জিডি) করেছেন।

নগরীর মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এএসএম সিদ্দিকুর রহমান বলেন, গত শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) রাতে এক মেইল থেকে ‘একুশে ফেব্রুয়ারির চেতনায় ভোট দিন’শিরোনামে কুরুচিপূর্ণ, অসত্য, বানোয়াট, উদ্দেশ্য প্রণোদিত এবং মানহানিকর বক্তব্য প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের সদস্যদের নিকট প্রচার করা হয়। একই আইডি থেকে পরদিন রোববার (২১ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ‘একুশে ফেব্রুয়ারি চেতনায় রাজাকারের দল নির্বাচন বর্জন করুন’ শিরোনামে আরও একটি ইমেইল পাঠানো হয়। মেইলে বার্তা প্রেরক হিসেবে সমাজকর্ম বিভাগের অধ্যাপক ড. জান্নাতুল ফেরদৌসের নাম উল্লেখ করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজকর্ম বিভাগের অধ্যাপক ড. জান্নাতুল ফেরদৌসের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, ইমেইল দুটি আমি পাঠাই নি। উল্লেখিত ইমেইল আইডিটিও আমার না।’

জিপিতে অধ্যাপক সুলতান-উল-ইসলাম উল্লেখ করেন, 'আমি ইমেইলের সংযুক্তি হিসেবে প্রপার্টিস পরীক্ষা করে রেজাউল করিম বকসী নামটি লেখক হিসেবে দেখতে পাই। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগে এ নামে একজন অধ্যাপক কর্মরত আছেন।’

তিনি লিখেন, ‘ডিজিটাল প্রযুক্তি ও ইন্টারনেট ব্যবহার করে উক্ত ইমেইল আইডি থেকে আমার বিভিন্ন সহকর্মীদের নিকট মিথ্যা তথ্য-উপাত্ত উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে প্রচার করে আমার পরিবারের সদস্য ও আমার প্যানেলর সদস্যদের ব্যক্তিগত সামাজিক মর্যাদা ক্ষুন্ন করেছে।’

এরআগে গত মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজকর্ম বিভাগের অধ্যাপক ড. জান্নাতুল ফেরদৌস।

এ বিষয়ে বিষয়ে মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এএসএম সিদ্দিকুর রহমান বলেন, ‘এ ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। মামলাটি উপ-পরিদর্শক ইমরান হোসেনকে তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। ভুক্তভোগী নিজে বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) রাতে এসে একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

সালমান শাকিল/আরএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]