বছরে ৮০ হাজার টাকা পর্যন্ত বিমা সুবিধা পাবেন রাবি শিক্ষার্থীরা

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:২৬ পিএম, ২৩ জুন ২০২২
জেনিথ ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্সের সঙ্গে স্বাস্থ্য ও জীবন বিমা চুক্তি করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) নিয়মিত শিক্ষার্থীদের জন্য জেনিথ ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্সের সঙ্গে স্বাস্থ্য ও জীবন বিমা চুক্তি সম্পাদন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এর ফলে এখন থেকে দুর্ঘটনা বা অসুস্থতার কারণে হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা করলে বার্ষিক সর্বোচ্চ ৮০ হাজার টাকা বিমা সুবিধা পাবেন রাবির নিয়মিত শিক্ষার্থীরা।

বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার কার্যালয়ে এই চুক্তি স্বাক্ষরিত হয় বলে জেনিথ ইসলামী লাইফ থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। এই স্বাস্থ্য ও জীবন বিমার যাবতীয় কার্যক্রম রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে সম্পূর্ণ ডিজিটাল সিস্টেমে পরিচালিত হবে।

এই চুক্তির ফলে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রত্যেক শিক্ষার্থী দুর্ঘটনা বা অসুস্থতার কারণে হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা করলে বার্ষিক সর্বোচ্চ ৮০ হাজার টাকা এবং বহির্বিভাগীয় চিকিৎসার জন্য বার্ষিক সর্বোচ্চ ২০ হাজার টাকা বিল পাবেন। জীবন বিমা সুবিধা হিসাবে কোনো শিক্ষার্থীর মৃত্যুতে দুই লাখ টাকা পরিশোধ করা হবে। তাছাড়া সারা দেশে বিস্তৃত কোম্পানির নেটওয়ার্কভুক্ত হাসপাতালে সাশ্রয়ী মূল্যে স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতের লক্ষ্যে সব শিক্ষার্থীকে স্বাস্থ্য বিমা কার্ড প্রাদান করা হবে।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর মো. অবায়দুর রহমান প্রামাণিক এবং জেনিথ ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্সের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম নুরুজ্জামান নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর করেন।

চুক্তিপত্রে সাক্ষী উপস্থিত ছিলেন- রাবির রেজিস্ট্রার প্রফেসর মো. আবদুস সালাম, উপ-রেজিস্ট্রার (অ্যাকাডেমিক) এ এইচ এম আসলাম হোসেন, জেনিথ লাইফের এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট (প্রশাসন) আব্দুর রহমান ও ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. নিজাম উদ্দিন (উন্নয়ন প্রশাসন)।

অনুষ্ঠানে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-রেজিস্ট্রার (অ্যাকাডেমিক) এ এইচ এম আসলাম হোসেন জেনিথ ইসলামী লাইফের ডিএমডি (গ্রুপ বিমা) মুন্সী মো. আবদুল খালেক এবং মানব সম্পদ কর্মকর্তা মো. তাওহীদ উদ্দিন বাপ্পির নিকট চুক্তিপত্র হস্তান্তর করেন।

এমএএস/কেএসআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]