নির্বাচনে সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি ব্রাহ্মণবাড়িয়া
প্রকাশিত: ০৭:৫৭ পিএম, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রানা দাশগুপ্ত বলেছেন, নির্বাচন কমিশনে গিয়ে দুই ঘণ্টা কথা বলেছি। পরিষ্কার করে বলেছি নির্বাচনের পূর্বাপর সময়ে যেন সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়। যদি নিরাপত্তাহীন পরিবেশের কারণে সংখ্যালঘুরা ভোট দিতে না পারেন তার দায়ভার সরকার, রাজনৈতিক দল ও নির্বাচন কমিশনকেই নিতে হবে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমেপ্লক্সের হলরুমে আয়োজিত উপজেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের প্রতিনিধি সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

আগামী ১৩ মার্চ ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ (নাসিরনগর) আসনে উপ-নির্বাচনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। ফেসবুকে ইসলাম ধর্ম অবমাননার ছবি পোস্টের জেরে গত ২০১৬ সালের ৩০ অক্টোবর নাসিরনগর উপজেলা সদরে হিন্দুদের বেশ কয়েকটি ধর্মীয় উপাসনালয় ও অর্ধশতাধিক ঘর-বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগ করে দুর্বৃত্তরা।

রানা দাশগুপ্ত বলেন, আমরা নির্বাচন কমিশন ও রাজনৈতিক দল-জোটকে বলেছি নির্বাচনে ধর্ম-সাম্প্রদায়িকতার ব্যবহার এবং সকল ধর্মীয় উপাসনালয়ে নির্বাচনী প্রচার কাজ নিষিদ্ধ করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, নির্বাচনকালে ধর্মীয় বিদ্বেষমূলক বক্তব্য যদি কেউ প্রদান করে অথবা কোনো প্রার্থীর পক্ষে তার কোনো সমর্থক বিবৃতি আকারে প্রচার করে তাহলে তাৎক্ষণিকভাবে তার প্রার্থীতা বাতিল করে তাকে আইনের আওতায় আনতে হবে।

সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- জেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি দীলিপ নাগ, সাধারণ সম্পাদক অমরেন্দ্র রায়, নাসিরনগর উপজেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি আদেশ চন্দ্র দেব, নাসিরনগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু জাফর প্রমুখ।

আজিজুল সঞ্চয়/এএম/জেআইএম