অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘটে অচল বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি পঞ্চগড়
প্রকাশিত: ০৫:১৩ পিএম, ২৫ এপ্রিল ২০১৯

চট্টগ্রামে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে বাস চালককে পিটিয়ে হত্যার প্রতিবাদে পঞ্চগড়সহ উত্তরাঞ্চলের চারটি জেলায় একযোগে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট ডেকেছেন পরিবহন শ্রমিকরা।

পঞ্চগড়ে বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে এ ধর্মঘট শুরু হয়। ধর্মঘটে আন্তজেলার সবকটি রুটে সব প্রকার যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। এমনকি দূরপাল্লার বাসও ছাড়েনি। এতে দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রীসহ পরিবহন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ী ও যাত্রীরা।

এদিকে, অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘটে পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া উপজেলার বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরে স্থবিরতা দেখা দিয়েছে। বৃহস্পতিবার বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর দিয়ে ভারত ও নেপাল থেকে পাথরসহ বিভিন্ন পণ্য আমদানি কার্যক্রম স্বাভাবিক থাকলে বন্দর ইয়ার্ড থেকে পাথরসহ বিভিন্ন পণ্য বাইরে সরবরাহ করা যায়নি।

এতে ক্ষতির মুখে পড়েছেন বন্দর সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা। এ স্থলবন্দর দিয়ে ভারত ও নেপাল থেকে গড়ে প্রতিদিন দুইশ’র অধিক ট্রাকভর্তি পাথরসহ বিভিন্ন পণ্য আমদানি করা হয়।

Panchagarh-LandPort-Strike

আন্তজেলা ১৮টি রুটে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। জেলা শহরের বিভিন্ন রুটে পিকআপ ভ্যান, ইজিবাইকসহ যানবাহন চলাচলে পরিবহন শ্রমিকদের বাধা দিতে দেখা গেছে। এতে দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রীসহ পরিবহন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা। কাজ না থাকায় অলস সময় কাটাচ্ছেন পরিবহনসহ অন্যান্য শ্রমিকরা।

জেলা শহরের কুলি শ্রমিক তরিকুল ইসলাম বলেন, আমরা সারাদিন পণ্য ওঠা-নামার আয় দিয়ে সংসার চালাই। সকাল থেকে বসে আছি। সবরকম পরিবহন বন্ধ। আমাদের কাজ বন্ধ। এক টাকাও আয় নেই। এভাবে চললে আমরাই বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হব।

বাংলাবান্ধা স্থল বন্দরের আমদানিকারক ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান কুদরত-ই-খোদা মিলন বলেন, পরিবহন ধর্মঘটের কারণে সকাল থেকে কোনো গাড়ি স্থলবন্দর ছেড়ে যেতে পারেনি। তবে ভারত ও নেপাল থেকে পণ্য আমদানি কার্যক্রম স্বাভাবিক রয়েছে। স্থলবন্দর থেকে যেসব পণ্য দেশের বিভিন্ন এলাকায় সরবরাহ করা হয়, তা বন্ধ রয়েছে। পরিবহন ধর্মঘটের ফলে বন্দর শ্রমিকদের পাশাপাশি আমরাও ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছি।

জেলা মোটর পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মোশারফ হোসেন বলেন, বাস চালককে হত্যার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি। আমাদের এই আন্দোলন যৌক্তিক। হত্যাকারীদের গ্রেফতার না করা পর্যন্ত আমাদের অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট চলবে।

সফিকুল আলম/এএম/পিআর