সুখে-শান্তিতে বসবাস করছে দেশের মানুষ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফরিদপুর
প্রকাশিত: ১০:০০ পিএম, ২৭ নভেম্বর ২০১৯

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য ও স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন এমপি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সারাদেশে আজ যে অভূতপূর্ব উন্নয়ন হচ্ছে তা দেখে বিস্মিত বিশ্ববাসী। গত দশ বছরে উন্নয়নের কোনো খাত অপূর্ণ নেই। দেশে আজ সন্ত্রাসী-চাঁদাবাজ নেই। সুখে-শান্তিতে বসবাস করছে দেশের মানুষ।

বুধবার (২৭ নভেম্বর) বিকেলে ফরিদপুরের বদরপুর এলাকায় এলজিইডির আয়োজনে এলজিইডি কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন ৯টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

ফরিদপুর এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী কে এম ফারুকের সভাপতিত্বে ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, পল্লী উন্নয়নে আজ সারাবিশ্বে রোল মডেল এলজিইডি। দেশে শক্তিশালী কারিগরি ডিপার্টমেন্ট না থাকলে পল্লী উন্নয়ন কোনোভাবেই সম্ভব না। পল্লী উন্নয়ন করতে হলে একটি শক্তিশালী ডিপার্টমেন্ট অত্যন্ত জরুরি। এই ডিপার্টমেন্টের কাজ করতে পেরে আমি নিজেকে গর্বিত মনে করি। প্রতিষ্ঠানটির জন্য সারাদেশের কোটি কোটি মানুষ উপকৃত।

তিনি বলেন, ফরিদপুরের উন্নয়নের জন্য যখন যা চেয়েছি প্রধানমন্ত্রী দুই হাত ভরে দিয়েছেন। কারণ তিনি এই মাটির সন্তান। আগামী তিন বছরে ফরিদপুরকে সারাদেশের মধ্যে সেরা জেলা হিসেবে গড়ে তুলব। মানুষের সেবা করা আমার এবং আমাদের পরিবারের ঐতিহ্য।

ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন এমপি তার বক্তব্যের মধ্যে দিয়ে এলজিইডি কর্তৃক বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প তুলে ধরেন। তিনি বলেন, ২৭ কোটি ৫৪ লাখ ২৬ হাজার টাকা ব্যয়ে এই ৯টি প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হবে। এর মধ্যে বদরপুরে ১ কোটি ৭০ লাখ টাকায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল মুক্তিযুদ্ধ কমপ্লেক্স স্মৃতিসৌধ নির্মাণ, ২ কোটি ৩৩ লাখ ৭৪ হাজার টাকা ব্যয়ে সুফিয়া জামে মসজিদ নির্মাণ, ৩ কোটি ৩২ লাখ ৪৩ হাজার টাকা ব্যয়ে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণ, ১ কোটি ৭৬ লাখ ৬৬ হাজার টাকা ব্যয়ে আকুইন চরপাড়া কবরস্থান ও ঈদগাহ উন্নয়ন, ১ কোটি ৮৭ লাখ ৫৬ হাজার টাকা ব্যয়ে কানাইপুর কৃষক সেবা কেন্দ্র নির্মাণ, ৩ কোটি ৫৮ লাখ টাকা ব্যয়ে সাচিয়া কৃষি কলেজ বাজার নির্মাণ, ২ কোটি ৭৮ লাখ ৭৫ হাজার টাকা ব্যয়ে হঠাৎ বাজার থেকে চর দুর্গাপুর ভায়া খালাসী দুর্গাপুর সড়ক উন্নয়ন, ২ কোটি ৭১ লাখ ২৭ হাজার টাকা ব্যয়ে কানাইপুর থেকে চাঁদপুর জিসি ভায়া কোশাগোপালপুর সড়ক উন্নয়ন ও ৭ কোটি ৪৫ লাখ ৭৫ হাজার টাকা ব্যয়ে বাখুন্ডা থেকে কানাইপুর জিসি ভায়া তাম্বুলখানা সড়ক উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়ন করা হবে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিশন ২০২১-২০৪১-এর লক্ষ্যমাত্রা পূরনের পথে এগিয়ে চলেছেন। এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকলে বাংলাদেশ ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হবে। এতে কোনো সন্দেহ নেই। আপনারা অতীতের মতো আওয়ামী লীগের পাশে সবসময় থাকুন, উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় আমরা আগামী তিন বছরের মধ্যে দেশের শীর্ষস্থানীয় উন্নত জেলায় পরিণত হব।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- এলজিইডির অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী আব্দুল কুদ্দুস মন্ডল, জেলা প্রশাসক অতুল সরকার, পুলিশ সুপার আলীমুজ্জামান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সুবল চন্দ্র সাহা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ঝর্ণা হাসান, সদর উপজেলার চেয়ারম্যান মো. আব্দুর রাজ্জাক মোল্যা, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. লোকমান হোসেন মৃধা, ফরিদপুরের পৌর মেয়র শেখ মাহতাব আলী মেথু, শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি নাজমুল ইসলাম খন্দকার লেভী ও সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী বরকত ইবনে সালাম প্রমুখ।

এতে উপস্থিত ছিলেন- সদর উপজেলা প্রকৌশলী মো. আজহারুল ইসলাম, সহকারী প্রকৌশলী সামচুল আলম মনির, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সাদেকুজ্জামান মিলন পাল, কোষাধ্যক্ষ মো. নজরুল ইসলাম, আইন বিষয়ক সম্পাদক জাহিদ ব্যাপারী, দপ্তর সম্পাদক মুনীর হোসেন, শহর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. আজমল হোসেন খান ও শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পদক নুরুল আমিন বাপ্পি প্রমুখ।

বি কে সিকদার সজল/এএম/পিআর