প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণ করে ভিডিও ছড়িয়ে দিল মেম্বারের ছেলে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক রাজশাহী
প্রকাশিত: ০৯:০২ পিএম, ২৩ জানুয়ারি ২০২০

রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলায় বাকপ্রতিবন্ধী (২০) এক তরুণীকে ধর্ষণের পর ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার ঘটনায় দুই কিশোরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এর মধ্যে একজন ইউপি সদস্যের ছেলে। আরেকজন তার বন্ধু।

বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) সকালে উপজেলার লালইচ এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ। ওই তরুণীর মায়ের দায়ের করা মামলায় দুপুরে তাদের আদালতে পাঠানো হয়।

পাশাপাশি স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ধর্ষণের শিকার তরুণীকে নেয়া হয়েছে রাজশাহী মেডিকেল হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি)। মোহনপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাক আহম্মেদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, বাকপ্রতিবন্ধী তরুণীকে বাবার বাড়ি রেখে মা দুই বছর আগে বিদেশে যান। গত বছরের ৯ আগস্ট উপজেলার এক ইউপি সদস্যের ১৪ বছর বয়সী ছেলে ওই তরুণীকে ধর্ষণ করে। ওই সময় ধর্ষণের ভিডিও ধারণ করে রাখে সে। গত ২৫ নভেম্বর ওই তরুণীর মা দেশে আসেন। এরপর বিষয়টি জানতে পারলেও সম্মানের কথা চিন্তা করে গোপন রাখেন। কয়েক দিন আগে ধর্ষণের সেই ভিডিও সবার মুঠোফোনে ছড়িয়ে পড়ে। এতে বিষয়টি জানাজানি হয়।

সকালে ওই তরুণীর মায়ের দায়ের করা মামলায় গ্রেফতার করা হয় ওই কিশোরকে। ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় একই এলাকার ১৬ বছরের আরেক কিশোরকে।

ওসি আরও বলেন, ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণের কথা স্বীকার করেছে ওই কিশোর। তার মোবাইলে ধর্ষণের ভিডিও পাওয়া গেছে। অপর কিশোরী ভিডিও এলাকায় ছড়ানোর দায় স্বীকার করেছে। পরে তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।

ফেরদৌস সিদ্দিকী/এএম/পিআর