এবার শার্শায় বিএসএফের নির্যাতনে বাংলাদেশি নিহত

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি বেনাপোল (যশোর)
প্রকাশিত: ০৯:৪৮ পিএম, ২৩ জানুয়ারি ২০২০

এবার ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) নির্যাতনে হানেফ আলী ওরফে খোকা (৩২) নামে এক বাংলাদেশি যুবক নিহত হয়েছেন। নিহত খোকা গরু ব্যবসায়ী ছিলেন। তিনি শার্শা উপজেলার অগ্রভুলোট গ্রামের শাজাহান আলীর ছেলে।

বাবা শাহাজান আলী বলেন, বুধবার (২২ জানুয়ারি) রাত থেকে খোকাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে খবর নিয়ে জানতে পারি বিএসএফ তাকে ধরে ক্যাম্পে নিয়ে বেধড়ক মারধর ও নির্যাতন চালায়। তার অবস্থার অবনতি হলে হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যায়। বর্তমানে তার মরদেহ ভারতের বনগাঁ হাসপাতাল মর্গে রাখা আছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে স্থানীয় ইউপি সদস্য তবিবুর রহমান বলেন, বিজিবি ও বিএসএফের সঙ্গে যোগাযোগ করে খোকার মরদেহ দেশে ফেরত আনার চেষ্টা চলছে।

তিনি বলেন, পারিবারিক বিরোধে দুদিন আগে ভারতের মধ্যমগ্রামে মামার বাড়ি চলে যায় খোকা। বুধবার সকালে বাড়ি ফেরার পথে বিএসএফের হাতে ধরা পড়ে। তাদের নির্যাতনের একপর্যায়ে খোকা মারা যান। তার মরদেহ ভারতের বনগাঁ হাসপাতাল মর্গে রাখা আছে।

২১ বিজিবির সুবেদার মোফাজ্জেল হোসেন বলেন, এ বিষয়ে বিএসএফের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি আমরা। তবে এখন পর্যন্ত আমাদের কিছুই জানায়নি তারা।

এর আগে নওগাঁর পোরশার হাঁপানিয়া সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) গুলিতে তিন বাংলাদেশি গরু ব্যবসায়ী নিহত হন। বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) ভোরে উপজেলার দুয়ারপাল সীমান্ত এলাকার ২৩১/১০(এস) মেইন পিলারের নীলমারী বিল এলাকায় ভারতের ক্যাদারীপাড়া ক্যাম্পের বিএসএফ জওয়ানরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে। এ নিয়ে একদিনে বিএসএফের হাতে চার বাংলাদেশি নিহত হলেন।

জামাল হোসেন/এএম/এমকেএইচ