শরীরের দুর্গন্ধে কাছে ঘেঁষছিলেন না কেউ, এগিয়ে এলেন ইউএনও

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি শরীয়তপুর
প্রকাশিত: ০৯:২৮ পিএম, ২১ জানুয়ারি ২০২১

সড়কে লুঙ্গি মোড়ানো অবস্থায় পড়েছিলেন ৪০ বছর বয়সের অসুস্থ মানসিক প্রতিবন্ধী এক ব্যক্তি। শরীরে দুর্গন্ধ, ঘা ও ময়লা থাকায় তাকে উদ্ধার বা সাহায্য করতে কেউ এগিয়ে আসেনি। তবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট দেখে ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে চিকিৎসার উদ্যোগ নিয়েছেন শরীয়তপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মনদীপ ঘরাই।

বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) বিকেল পৌনে ৩টার দিকে শরীয়তপুর সদর উপজেলার কানার বাজার-বুড়িরহাট সড়কে এ ঘটনা ঘটে।

jagonews24

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মনদীপ ঘরাই জাগো নিউজকে বলেন, ‘আজ দুপুর দেড়টার দিকে এস দেবনাথ নামের একটি ফেসবুকে পোস্টে লেখা ছিল- ‘মানুষ মানুষের জন্য, শরীয়তপুর কানার বাজার টু বুড়িরহাট রাস্তার বৃক্ষতলায় একজন অসুস্থ মানুষ খালি একটি লুঙ্গি গায়ে বসে আছে। নাম-ঠিকানা কিছুই বলতে পারে না। মুখে একটি আঘাতের চিহ্ন দেখা যায়। দাঁত কামড়ানোর আওয়াজ শোনা যায়। আমরা কি সাহায্য করতে পারি?’ লেখাটা দেখার পর তাৎক্ষণিক গিয়ে (বিকেল পৌনে ৩টা) ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করি।’

তিনি বলেন, ‘অসুস্থ ওই মানসিক প্রতিবন্ধী তার ঠিকানা বলতে পারছেন না। তাকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের তিনতলায় কেবিনে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘একজন মানুষ হিসেবে আরেকজন বিপন্ন মানুষকে সাহায্য করাই ধর্ম। তাই ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে সমাজসেবার মাধ্যমে চিকিৎসার দায়িত্ব নিই। আমরা ওই ব্যক্তির পরিচয়ও জানার চেষ্টা করছি।’

jagonews24

ওই ব্যক্তির চিকিৎসা দিচ্ছেন ডা. সাইয়েদা নাসরীন। তিনি জানান, তার শরীর অত্যন্ত দুর্বল। শরীরে অনেক ঘায়ের চিহ্ন আছে। প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। তার বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে।

স্থানীয়রা জানান, সড়কের পাশে পড়েছিলেন ওই ব্যক্তি। সদর উপজেলার ইউএনও ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে গাড়িতে তুলে হাসপাতালে নিয়ে যান। ওই ব্যক্তির শরীর দিয়ে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছিল, সহায়তা করছিলেন না কেউ। তখন ইউএনও তাকে গাড়িতে হাসপাতালে নেন। এটা অনেক মানবিক ঘটনা। তিনি এমন কাজ করে মানবতার পরিচয় দিয়েছেন।

মো. ছগির হোসেন/এসআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]