পাঁচ বান্ডিল টিনের অভাবে আটকে রয়েছে সংস্কার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সাতক্ষীরা
প্রকাশিত: ০৯:০৯ পিএম, ০৭ মে ২০২১ | আপডেট: ০৯:১১ পিএম, ০৭ মে ২০২১

ঘূর্ণিঝড় আম্পানের পর এক বছর কেটে গেছে। তবে এখনও মেরামত করা যায়নি সাতক্ষীরার তালা উপজেলার আটারই গ্রামের মোড়লপাড়া মাদরাসা।

আম্পানের তাণ্ডবে তছনছ হয়ে পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছে মাদরাসার টিন সেড। মাদরাসায় প্রতিদিন সকালে দুই পাড়ার অন্তত ৫০-৬০ ছেলে-মেয়ে কোরআন শিক্ষা নিত। কিন্তু টিনসেড ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় গেল এক বছর বন্ধ রয়েছে কোরআন শিক্ষা কার্যক্রম।

jagonews24

স্থানীরা জানান, মাদরাসাটি এমপিওভুক্ত নয়। ফলে এখানে কোনো সহযোগিতা আসে না। স্থানীয়দের অনুদানে দুইজন শিক্ষক দিয়ে মাদরাসা পরিচালিত হত। স্থানীয়দের রাজনৈতিক দ্বন্দ্বের কারণে সেটিও আর সংস্কার হয়নি। ফলে বাধ্য হয়ে শিক্ষার্থীরা অন্য মাদরাসায় ভর্তি হয়েছে।

jagonews24

মাদরাসা পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেন জানান, গ্রামের অর্ধশত শিশুরা কোরআন শিক্ষা নিত এখানে। পরবর্তীতে গ্রামের মহিলাদের জন্য কোরআন শিক্ষা কার্যক্রম চালু হয়। তবে গতবছর ঘূর্ণিঝড় আম্পানের কারণে টিন সেডটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এছাড়া করোনা মহামারির কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় এটি আর সংস্কার করা যায়নি। বর্তমানে এটি সংস্কারের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এজন্য পাঁচবান টিন দরকার। টিনের ব্যবস্থা হলে আগের মত শিশুরা কোরআন শিক্ষা নিতে পারবে।

তালা সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সরদার জাকির হোসেন জানান, বিষয়টি জানা ছিল না। এ বিষয়ে খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা করব।

আহসানুর রহমান রাজীব/এএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]