কুড়িয়ে পাওয়া জুস পান করে একই পরিবারের তিনজন হাসপাতালে

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি যশোর
প্রকাশিত: ০১:৫৩ এএম, ০৮ মে ২০২১

যশোরে কুড়িয়ে পাওয়া ফ্রুটস জুস পান করে বাবা-ছেলেসহ একই পরিবারের তিন সদস্য অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। শুক্রবার (৭ মে) যশোরের মণিরামপুর উপজেলার জয়পুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

তাদের প্রথমে মণিরামপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে শুক্রবার সন্ধ্যায় চিকিৎসকের পরামর্শে যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

তারা হলেন-জয়পুর গ্রামের রফিকুল ইসলাম (৬৫) ও তার ছেলে আবু সাইদ (৩০) এবং নাতি আশিকুর রহমান (১০)। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত রফিকুল ইসলামের জ্ঞান ফেরেনি বলে জানান বড় ছেলে তরিকুল ইসলাম।

তরিকুল ইসলাম জানান, আট বছর আগে তার বাবা সড়ক দুর্ঘটনার কবলে পড়লে বাম পা কেটে ফেলতে হয়। এরপর থেকে ঠ্যালা গাড়িতে করে ভিক্ষাবৃত্তি করেন। বৃহস্পতিবার (৬ মে) রাত ৯টার দিকে ফেরার পথে ফ্রুটস জুস পেয়ে বাড়িতে আনেন। পরদিন শুক্রবার সকালে ভাত খেয়ে ১০টার দিকে তার বাবা রফিকুল ইসলাম, ছোটভাই আবু সাইদ ও তার ছেলে আশিকুর রহমান ওই জুস পান করেন। ১০ মিনিট পরই তিনজনই অচেতন হয়ে পড়লে মণিরামপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হওয়ায় চিকিৎসকের পরামর্শে যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নেয়া হয়।

মণিরামপুর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. মোসাব্বিরুল ইসলাম রিফাত জানান, ধারণা করা হচ্ছে তারা মেয়াদোত্তীর্ণ জুস পান করেছেন। প্রাথমিকভাবে তাদের চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিসার জন্য যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে পাঠানো হয়।

মিলন রহমান/এসআর

 

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]