স্কুলছাত্রীকে শ্লীলতাহানির দায়ে ৮ সন্তানের জনকের কারাদণ্ড

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি হবিগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৯:৪৭ পিএম, ০৭ জুন ২০২১

হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলায় প্রথম শ্রেণির ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির দায়ে সামছু লস্কর (৬০) নামের এক ব্যক্তিকে ১৪ দিনের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

সোমবার (৭ জুন) সকালে তাকে আটক করে পুলিশে দেয় স্থানীয়রা। সামছু লস্কর আট সন্তানের জনক। তার বাড়ি উপজেলা সদরের ২নং আদমখানী গ্রামে।

বানিয়াচংয়ের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইফফাত আরা জামান ঊর্মি জানান, সোমবার সকাল ছয়টায় পাইকপাড়া গ্রামে প্রথম শ্রেণির এক ছাত্রী স্থানীয় ইউনিয়ন অফিস সংলগ্ন জাম গাছের নিচে জাম কুড়াতে যায়। এ সময় সামছু তাকে জাপটে ধরে শ্লীলতাহানি করেন। বিষয়টি দেখতে পেয়ে আদমখানী গ্রামের বাসিন্দা ডাক্তার মনির লস্কর এগিয়ে এসে শিশুটিকে তার কবল থেকে ছাড়িয়ে আনেন এবং ঘটনার প্রতিবাদ করেন। এ সময় আশপাশের লোকজন এসে সামছুকে আটক করে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান হায়দারুজ্জামান খান ধন মিয়ার বাড়িতে নিয়ে যায়।

তিনি জানান, মোবাইল ফোনে ইউএনও মাসুদ রানা ও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. এমরান হোসেনকে ঘটনাটি অবহিত করা হয়। ইউএনওর নির্দেশে ইফফাত আরা জামান ঊর্মিসহ পুলিশ ঘটনাস্থলে আসেন।

সহকারী কমিশনার ঊর্মি ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে শ্লীলতাহানির শিকার শিশুটির বক্তব্য, অভিযুক্তের বক্তব্য ও এলাকাবাসীর কথা শুনে সামছুকে ১২ মাসের কারাদণ্ড ও ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। জরিমানা পরিশোধে ব্যর্থ হওয়ায় সামছুকে আরও দুই মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়। পরে তাকে কারাগারে পাঠায় পুলিশ।

সৈয়দ এখলাছুর রহমান খোকন/এমএসএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]