কমিউনিটি পুলিশের কার্যালয়ে ঢুকেও শেষ রক্ষা হলো না

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি যশোর
প্রকাশিত: ০৪:১৮ এএম, ২৩ জুলাই ২০২১

একটি গলির ভেতর দুর্বৃত্তরা শাওনকে ছুরিকাঘাত করতে থাকে। জীবন বাঁচাতে তিনি দৌড়ে কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের কার্যালয়ে ঢুকে পড়েন। কিন্তু তাতেও শেষ রক্ষা হয়নি শাওনের। সেখানেও গিয়ে তাকে ছুরিকাঘাত করতে থাকে দুর্বৃত্তরা।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে যশোরের শংকরপুর ছোটনের মোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত শাওন শহরের শংকরপুর জমাদ্দারপাড়া এলাকার হালিম ওরফে তিলে মুন্সির ছেলে।

স্থানীয় লোকজন ও হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, রাত ১০টার দিকে শঙ্করপুর ছোটনের মোড় এলাকার একটি গলির ভেতর চার-পাঁচ দুর্বৃত্ত শাওনকে ছুরিকাঘাত করে। জীবন বাঁচাতে তিনি দৌড়ে মোড়ে অবস্থিত কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের কার্যালয়ে ঢুকে পড়েন। সেখানেও গিয়ে দুর্বৃত্তরা তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছুরি দিয়ে আঘাত করে।

নিহতের বোন নিলা বলেন, ‘আমার ভাই শাওন শংকরপুর টার্মিনাল এলাকায় গাড়ি সার্ভিসিং-এর কাজ করে। সন্ধ্যার পর বাড়ি থেকে বের হয় সে। রাত ১০টার দিকে শুনি দুর্বৃত্তরা তাকে ছুরি মেরেছে। আমরা তাকে হসপিটালে নিয়ে আসলে ডাক্তার মৃত ঘোষণা করেন।’

যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক সালাউদ্দিন স্বপন বলেন, ‘ছুরিকাঘাতে জখম শাওন নামে একজনকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়েছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ মর্গে প্রেরণ করেছি।’

যশোর কোতোয়ালি থানার ওসি মো. তাজুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, ‘খবর পেয়েই পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। কারা, কী কারণে তাকে হত্যা করেছে- পুলিশ তা উদ্ঘাটনের চেষ্টা করছে। হত্যাকারীদের শনাক্ত ও গ্রেফতারে পুলিশি তৎপরতা শুরু হয়েছে।’

মিলন রহমান/জেডএইচ/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]