গুপ্তধনের প্রলোভনে মা-মেয়েকে ধর্ষণ, ৩ জনের যাবজ্জীবন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি গাইবান্ধা
প্রকাশিত: ০৪:৫৯ পিএম, ৩০ নভেম্বর ২০২১

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে মা ও মেয়েকে ধর্ষণের দায়ে তিনজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে প্রত্যেকের এক লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়।

মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) দুপুরে গাইবান্ধা নারী ও শিশু দমন ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক মো.আব্দুর রহমান এই রায় ঘোষণা করেন।

আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট ফারুক আহমেদ প্রিন্স জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সাজাপ্রাপ্তরা হলেন- গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার গোসাইপুর গ্রামের মমতাজ উদ্দিনের ছেলে বেলাল হোসেন, একই গ্রামের বদিউজ্জামান মিয়ার ছেলে এমদাদুল হক ও পার্শ্ববর্তী শ্যামপুর পার্বতীপুর গ্রামের দুদু মিয়ার ছেলে খাজা মিয়া।

এছাড়া দুজনকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়। এরা হলেন- একই উপজেলার সাতগাছি হাতিয়াদহ গ্রামের আবদুল কাদেরের ছেলে আজিজুল ইসলাম ও সুন্দাইল গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে আসাদুল ইসলাম।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালের ১২ মে আসামিরা মা ও মেয়েকে ফোন করে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় ডেকে আনেন। তারা জ্বিনের বাদশাহ পরিচয়ে তাদের গুপ্তধন পাইয়ে দেয়ার লোভ দেখান। লোভে পড়ে ভুক্তভোগী মা ও মেয়ে ওই রাতেই গোবিন্দগঞ্জে চলে আসেন। প্রতারক চক্রটি তাদের উপজেলার আমনাথপুর বালুয়ার নির্জন এলাকায় নিয়ে গিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করেন। পরদিন ভুক্তভোগীরা বাদী হয়ে অজ্ঞাতদের আসামি করে গোবিন্দগঞ্জ থানায় একটি ধর্ষণ মামলা করেন। পুলিশ সে সময় পাঁচজনকে গ্রেফতার করে। মামলার দীর্ঘদিন সাক্ষ্য গ্রহণের পর মঙ্গলবার বিচারক এ রায় ঘোষণা করেন।

জাহিদ খন্দকার/এসজে/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]