শ্রীলঙ্কাকে দেখে শেখা উচিত: ডা. জাফরুল্লাহ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি রাজশাহী
প্রকাশিত: ০৫:১৫ এএম, ১৭ মে ২০২২

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্যে করে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও মাওলানা ভাসানী পরিষদের চেয়ারম্যান ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, আজকে আপনাদের সামনে বড় কঠিন সময় আসছে। শ্রীলঙ্কাকে দেখে শেখা উচিত।

শ্রীলঙ্কার রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট তুলে ধরে তিনি বলেন, দশ দিন পূর্বেও পৃথিবীর কোনো বিশেষজ্ঞ বলেন নাই শ্রীলঙ্কায় আগুন জ্বলবে। তাই বলছি, মানুষের ধৈর্যের সীমা আছে। ধৈর্যের সীমা অতিক্রম করবেন না।

সোমবার (১৬ মে) বিকেলে রাজশাহী নগরীর লালন শাহ মুক্তমঞ্চে নদী ও পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন আয়োজিত ঐতিহাসিক ‘ফারাক্কা লং মার্চ’ দিবসের অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে ডা. জাফরুল্লাহ আরও বলেন, একটা অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের হাতে ক্ষমতা ছেড়ে দিন। সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন করুন। অতীত ইতিহাস দেখে শেখা উচিত।

তবে তিনি নির্বাচনী সময়সীমা নির্ধারণের বিষয়ে বলেন, অন্তর্বর্তীকালীন সরকার তিন মাসের জন্য হলে হবে না। পর্যাপ্ত সময় দিতে হবে।

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি বলেন, দেখেন আজকে প্রায় দুই কোটি পরিবার অর্ধাহারে-অনাহারে আছে। এমনকি আপনার মতো, আমার মতো মধ্যবিত্তরা, প্যান্ট-শার্ট পরা লোকেরা টিসিবির ট্রাকের সামনে দাঁড়িয়ে থাকে। আজকে ভিখারি জাতিতে পরিণত হয়েছি আমরা।

তিনি আরও বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচন ও সুশাসন দেন। রাগ, ক্ষোভ কমানোর জন্যই একটা অন্তবর্তীকালীন সরকার প্রয়োজন। যারা রাগ কমাবে, সুশাসন আনবে, শান্তি ফেরাবে। তারপর একটা সুষ্ঠু নির্বাচন হয়ে যাবে। নির্বাচনে যে-ই জিতুক, সে-ই আসবে। তবে রাগ থাকবে না, ক্ষোভ থাকবে না।

আওয়ামী লীগের নেতাদের উদ্যেশ্যে তিনি বলেন, অনেকে বলেন, শ্রীলঙ্কা হবে না। কেমনে জানে? শ্রীলঙ্কা তো শান্তির দেশ। তাদের জাতীয় বীর জাতীয় বেইমান হয়ে গেছে। সুতরাং সাধু সাবধান। জনগণের পেটে ক্ষুধার বড় জ্বালা।

বক্তব্যের শেষভাগে ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, কল্যাণকর রাষ্ট্রের জন্য সবাইকে একত্রিত হয়ে আন্দোলন করতে হবে। সেই সংগ্রামে আমি আছি আপনাদের সঙ্গে। আমার যতই বয়স হোক, যতই অসুস্থ হই না কেন- হুইল চেয়ারে করে হলেও আমি আপনাদের সঙ্গেই থাকবো।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ পানিসম্পদ পরিকল্পনা সংস্থার সাবেক মহাপরিচালক প্রকৌশলী ম. ইনামূল হক, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী হাসনাত কাইয়ুম, রাজশাহী জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট আবুল কাশেম প্রমুখ।

সভায় সভাপতিত্ব করেন ফারাক্কা লং মার্চ উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক মাহবুব সিদ্দিকী। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন নদী ও পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট হোসনে আলী পেয়ারা।

ফয়সাল আহমেদ/কেএসআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]