চুয়াডাঙ্গায় হত্যা মামলায় তিনজনের যাবজ্জীবন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি চুয়াডাঙ্গা
প্রকাশিত: ০৩:৪৭ পিএম, ০১ ডিসেম্বর ২০২২

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার রায়লক্ষ্মীপুর গ্রামের দিনমজুর সুনীল কুমার দাসকে হত্যার দায়ে দুই ভাইসহ তিনজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) দুপুরে চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ দ্বিতীয় আদালতের বিচারক মো. মাসুদ আলী জনাকীর্ণ আদালতে এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার কুতুবপুর গ্রামের কালু ফকিরের ছেলে সুলতান আলী ওরফে সুলতান আহম্মদ (৫৫), আলমডাঙ্গা উপজেলার রায়লক্ষ্মীপুর গ্রামের লালু মণ্ডলের ছেলে লিয়াকত আলী ওরফে ন্যাকো (৫৮) ও তার ভাই শওকত আলী (৬০)।

jagonews24

মামলা সূত্রে জানা যায়, জমিজমা নিয়ে বিরোধের জেরে ১৯৯৩ সালের ৯ ডিসেম্বর রাত ৮টার দিকে দণ্ডিত আসামিরাসহ অন্তত ১৭-১৮ জন ব্যক্তি দেশিয় অস্ত্রসহ সুনীলকে কুপিয়ে হত্যা করে। ঘটনাস্থলেই মারা যান সুনীল। ঘটনার পরদিন নিহতের ভাই অনিল কুমার দাস দণ্ডিত আসামিসহ ১৫ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাতনামা ৫/৭ জনকে আসামি করে আলমডাঙ্গা থানায় মামলা করেন।

মামলায় ১০ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর রায় ঘোষণা করেন আদালত। একই সঙ্গে দণ্ডপ্রাপ্ত প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড করা হয়। অনাদায়ে আরও ৬ মাসের দণ্ডাদেশ দেওয়া হয়।

অতিরিক্ত দায়রা জজ-২ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর গিয়াসউদ্দীন বলেন, এ হত্যা মামলায় মোট আসামি ছিলেন ২৫ জন। তিনজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। মামলার বাকি আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাদের খালাস দেওয়া হয়েছে।

জেএস/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।