তৃতীয় দিনের মতো চলছে পরিবহন ধর্মঘট, দুর্ভোগে যাত্রীরা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সিরাজগঞ্জ
প্রকাশিত: ০২:০৪ পিএম, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২

রাজশাহী বিভাগের আটটি জেলায় ১০ দফা দাবিতে চলছে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট। পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদ এ ধর্মঘটের ডাক দেয়। লাগাতার ধর্মঘটের ফলে চরম দুর্ভোগে পড়েছে সাধারণ মানুষ। অন্যদিকে বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) ভোর ৬টা থেকে শুরু হওয়া এ ধর্মঘটের দায় নিচ্ছেন না কেউ।

শনিবার (৩ ডিসেম্বর) সকাল ১০টার দিকে সিরাজগঞ্জ এম এ মতিন বাসস্ট্যান্ড ঘুরে দেখা যায়, সারিবদ্ধ ভাবে থামিয়ে রাখা হয়েছে রাজশাহীগামী বাসগুলো। তৃতীয় দিনের মতো এ ধর্মঘট চলছে। একই সঙ্গে জেলার অভ্যন্তরীণ রোডেও বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে ঢাকাগামী বাস চালু রয়েছে।

এদিকে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান বাচ্চু রাজশাহী থেকে মুঠোফোনে জাগো নিউজকে বলেন, শনিবার রাজশাহীতে বিএনপির গণসমাবেশকে কেন্দ্র করেই নাটকীয় ভাবে এ ধর্মঘটের আয়োজন করেছে আওয়ামী লীগ। তারা চেয়েছিল এ সমাবেশে যেন কেউ না আসতে পারে। এরই মধ্যে বিভিন্ন জেলার অসংখ্য নেতাকর্মীর সমাগম ঘটেছে রাজশাহীর মাদরাসা ময়দানে।

তবে বিএনপির এমন অভিযোগ অস্বীকার করে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ তালুকদার জাগো নিউজকে বলেন, এ ধর্মঘটের সঙ্গে আওয়ামী লীগের কোনো সম্পর্ক নেই। বাস মালিক-শ্রমিক সমিতিতে সব দলেরই লোক আছে। তারা তাদের দাবি আদায়ে ধর্মঘট ডেকেছে। এ বিষয়ে আওয়ামী লীগকে জড়ানোর কোনো সুযোগ নেই।

এ প্রসঙ্গে সিরাজগঞ্জ জেলা বাস মিনিবাস ও কোচ মালিক সমিতির সভাপতি মেজবাহুল ইসলাম লিটন জাগো নিউজকে বলেন, রাজশাহীর গণসমাবেশকে উদ্দেশ্য করে এ ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়নি। মহাসড়কে অবৈধ যানবাহন চলাচল বন্ধসহ ১০ দফা দাবিতে এ ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছে। শান্তিপূর্ণভাবে তৃতীয় দিনের মতো এ ধর্মঘট পালিত হচ্ছে।

জেএস/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।