শিক্ষার্থীদের কাউন্সিলিং নীতিমালা গঠনে কমিটি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:৩৯ পিএম, ০৬ মার্চ ২০১৯

শিক্ষার্থীদের আত্মহত্যা প্রতিরোধে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মধ্যে কাউন্সিলিং সেবা প্রদান করতে জাতীয় নীতিমালা প্রণয়ন করতে যাচ্ছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এ লক্ষ্যে সাত সদস্যের কমিটি গঠন করে আদেশ জারি করা হয়েছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বেসরকারি মাধ্যমিক শাখা থেকে মঙ্গলবার (৫ মার্চ) স্বাক্ষরিত আদেশে বলা হয়েছে, হাইকোর্টের নির্দেশনা অনুযায়ী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে শিক্ষার্থীদের সুইসাইড/বুলিংসহ যে কোনো ধরনের ইনজুরি প্রতিরোধ ও শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মধ্যে এ বিষয়ে কাউন্সিলিং সেবা প্রদান সংক্রান্ত জাতীয় নীতিমালা প্রণয়নে কমিটি গঠন করা হলো।

মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (মাধ্যমিক-২) জাবেদ আহমেদকে আহ্বায়ক করে সাত সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে।

কমিটি আগামী এক মাসের মধ্যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে সুইসাইড/বুলিংসহ যে কোনো ধরনের ইনজুরি প্রতিরোধ ও শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মধ্যে এ বিষয়ে কাউন্সিলিং সেবা প্রদান সংক্রান্ত জাতীয় নীতিমালার খসড়া মতামতসহ মন্ত্রণালয়ে দাখিল করবেন।

কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন-সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব মো. আবুল আমিন, স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের উপ-সচিব মাকসুদা হোসেন, আইন ও বিচার বিভাগের সিনিয়র সহকারী সচিব মোল্যা সাইফুল আলম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. কামাল উদ্দিন ও রাজধানীর গভ. ল্যাবরেটরি স্কুলের প্রধান শিক্ষক (ভারপ্রাপ্ত) দেওয়ান তাহেরা আক্তার। আর সদস্য সচিব হিসেবে থাকবেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতরের পরিচালক (মাধ্যমিক) অধ্যাপক মান্নান সরকার।

ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী অরিত্রী অধিকারীর আত্মহত্যার ঘটনার পর আদালতের নির্দশনার প্রেক্ষিতে এ সংক্রান্ত জাতীয় নীতিমালা করতে কমিটি গঠন করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ।

গত ৩ ডিসেম্বর শান্তিনগরে গলায় ফাঁস দিয়ে নবম শ্রেণির ছাত্রী অরিত্রী অধিকারী আত্মহত্যা করে। তার বাবা দিলীপ অধিকারীর অভিযোগ, শিক্ষকরা মায়ের সামনে অরিত্রীকে অপমান করায় সে আত্মহত্যা করেছে। এ ঘটনার পরদিন আদালত আত্মহত্যাজনিত ঘটনা প্রতিরোধে জাতীয় নীতিমালা প্রণয়ন করতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দেয়।

এমএইচএম/এএইচ/এমএস