৩০৬ শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দিলো সেনা কল্যাণ সংস্থা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:৪৮ পিএম, ১৭ জানুয়ারি ২০২২

২০২০ সালের এসএসসি পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে ৩০৬ শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দিয়েছে সেনা কল্যাণ সংস্থা। এদের মধ্যে ঢাকা জোনের ৬১ জনকে আজ এক অনুষ্ঠানে বৃত্তির টাকা তুলে দেওয়া হয়।

বাকিদের বৃত্তির টাকা ডাকযোগে পাঠানো হবে। প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে ১০ হাজার টাকা করে মোট ৩০ লাখ ৬০ হাজার টাকা প্রদান করা হচ্ছে।

রাজধানীর মহাখালীতে সেনা কনভেনশন হলে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সংস্থার চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম। সকল ডিভিশনের ডিরেক্টর জেনারেলরাও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

আয়োজকদের পক্ষ থেকে জানানো হয়, শিক্ষিত প্রজন্ম গড়ে তোলার প্রত্যয়ে সেনা কল্যাণ সংস্থা জন্মলগ্ন থেকে সশস্ত্রবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত সদস্যদের সন্তানদের লেখাপড়ার সহায়তায় মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক ও স্নাতক/স্নাতকোত্তর এই তিন পর্যায়ে শিক্ষামূলক বৃত্তিসহ কর্মক্ষেত্রেও পেশাগত দক্ষতায় দক্ষ করে তোলার জন্য পেশামূলক বৃত্তি প্রদান করে আসছে। এছাড়া মেধাবী শিক্ষার্থী যারা জিপিএ-৫ ফলাফল অর্জন করছে তাদের উৎসাহমূলক বৃত্তি প্রদান করা হয়ে থাকে।

অনুষ্ঠানে সেনা কল্যাণ সংস্থার চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম বলেন, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধকালীন প্রতিষ্ঠিত সংস্থাটি স্বাধীনতার পর ‘সেনা কল্যাণ সংস্থা’ নাম পায়। জন্মলগ্ন থেকে এটি বিভিন্ন কল্যাণমূলক কাজ করে আসছে। অবসরপ্রাপ্ত সেনাসদস্য ও তাদের পরিবারের জন্য দেশ-বিদেশে চিকিৎসা সহায়তা প্রদান, বয়স্ক ও দুঃস্থ ভাতা প্রদান, দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে ৩০টি ডিসপেনসারির মাধ্যমে চিকিৎসাসেবা প্রদানসহ ঢাকা, চট্টগ্রাম ও রাজশাহীতে মোট পাঁচটি বিশ্রামাগার রয়েছে সংস্থাটির যেখানে অবসরপ্রাপ্ত সদস্যরা বিভিন্ন প্রয়োজনে স্বল্পখরচে রাত্রিযাপন করতে পারেন।

তিনি বলেন, প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সেনা কল্যাণ সংস্থা কল্যাণ খাতে ১৮ লাখ ৫৯ হাজার ২২০ জনকে প্রায় ৪৫০ কোটি টাকা সহায়তা দিয়েছে। ২০২০-২০২১ অর্থবছরে এক লাখ ৬০ হাজার জনকে প্রায় ৫০ কোটি টাকা সহায়তা প্রদান করেছে।

তিনি আরও বলেন, সেনা কল্যাণ সংস্থা যেকোনো দুর্যোগে অসহায় ও দরিদ্র জনসাধারণের পাশে এসেও দাঁড়িয়েছে। করোনাকালীন সংস্থাটি প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে পাঁচ কোটি টাকা দিয়েছে এবং প্রায় ৭০ হাজার অসহায় দুঃস্থ পরিবারের মধ্যে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেছে।

এমএইচএম/বিএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]