২০ বছর পর ঢাকায় এলেন অঞ্জু ঘোষ


প্রকাশিত: ০৭:৩৭ এএম, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৬

ঢাকাই চলচ্চিত্রে একসময়ের তুমুল জনপ্রিয় নায়িকা ছিলেন ‘বেদের মেয়ে জোছনা’খ্যাত অঞ্জু ঘোষ। তার মিষ্টি হাসি, বড় চোখের মায়াবী চাহনি, মন মাতানো অভিনয়, প্রাণ দুলানো নাচ দাগ কেটেছিলো কোটি যুবকের অন্তরে। কিন্তু সব ছেড়ে হঠাৎ করেই তিনি চলচ্চিত্র থেকে দূরে সরে যান। বসবাস করতে শুরু করেন কলকাতায়। সেখানে অবশ্য কিছু চলচ্চিত্রে তাকে অভিনয় করতে দেখা গেছে।

দীর্ঘ বিরতি কাটিয়ে ২০ বছর পর ঢাকায় এলেন অঞ্জু ঘোষ। তবে তার এই ঢাকা সফর একেবারেই গোপনীয়। সেকারণে তিনি মিডিয়াকে এড়িয়ে গেছেন।

গোপন সূত্রে জানা গেছে, অঞ্জু ঘোষ চলতি সপ্তাহে ঢাকায় এসেছেন। এখন রাজধানীর শ্যামলীতে তার দূর সম্পর্কের এক আত্মীয়ের বাসায় উঠেছেন। এছাড়া রাজধানীর শ্যামলী শপিং কমপ্লেক্সেও তাকে একবার দেখা গেছে। অন্যদিকে অঞ্জু যে বিল্ডিংয়ের উঠেছেন সেখানে বসবাসকারী অনেকেই তাকে চিনতে পেরেছেন। তবে তিনি কেন এসেছেন, কতোদিন থাকবেন এ ব্যাপারে কিছু জানা যায়নি।

উল্লেখ্য, অঞ্জুর প্রকৃত নাম অঞ্জলি ঘোষ। ফরিদপুরের ভাঙ্গায় তার জন্ম। ঢাকাই চলচ্চিত্রের একসময়ের তুমুল জনপ্রিয় এই নায়িকা অঞ্জু ঘোষ এখন কলকাতাবাসী। সেখানেই নিজে ফ্ল্যাট কিনেছেন। এছাড়া অঞ্জু কলকাতার বিশ্বভারতী যাত্রা পালাতেও নিয়মিত অভিনয় করেন।  

বাংলাদেশে তার উল্লেখ্যযোগ্য ছবিগুলোর মধ্যে রয়েছে ‘বড় ভালো লোক ছিলো’, ‘আবে হায়াত’, ‘প্রাণ সজনী’, ‘ধন দৌলত’, ‘চন্দন দ্বীপের রাজকন্যা’, ‘রক্তের বন্দি’, ‘আওলাদ’, ‘চন্দনা ডাকু’, ‘মর্যাদা’, ‘নিয়ত’, ‘দায়ী কে’, ‘কুসুমপুরের কদম আলী’, ‘অবরোধ’, ‘শিকার’, ‘রঙ্গিন নবাব সিরাজউদ্দৌলা’, ‘চোর ডাকাত পুলিশ’, ‘শঙ্খমালা’, ‘আদেশ’, ‘আয়না বিবির পালা’, ‘এই নিয়ে সংসার’, ‘গাড়ীয়াল ভাই’, ‘প্রেম যমুনা’ ইত্যাদি।

১৯৯৬ সালে মনের ভেতর এক অজানা কষ্ট নিয়ে বাংলাদেশ ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন অঞ্জু। তারপর থেকেই কলকাতাতেই তার নিবাস।   
 
এনই/এলএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]