ভিডিও বার্তায় নিজের বিয়ে নিয়ে যা বললেন এভ্রিল

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:৪৫ এএম, ০৩ অক্টোবর ২০১৭

ডিভোর্সের কথা স্বীকার করে নিলেন ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ জান্নাতুল নাঈম এভ্রিল। মঙ্গলবার দুপুরে ফেসবুকে এক ভিডিও বার্তায় নিজের বিয়ের কথা বলতে গিয়ে কেঁদে ফেলেন এই তরুণী।

জান্নাতুল নাঈম বলেন, ‘আমি ছোটবেলা থেকে কোনো বাধা-বিপত্তিতে মাথা নত করিনি। একটা ১৬ বছরের মেয়েকে তার বাবা জোর করে বিয়ে দিচ্ছে, সেই মেয়ে বিয়ের আসর থেকে পালিয়ে এসেছে। সেই মেয়ে এখন সাকসেসফুল। সে তার সমাজের কোনো কথা শোনেনি।

আশপাশের কারও কথা কানে নেইনি। তার একটাই উদ্দেশ্য ছিল, যেখানে ২০ কোটি মানুষের বাংলাদেশে বাল্যবিবাহ একটি দৈনন্দিন ঘটনা, সেখানে বাল্যবিবাহ আমি মানতে পারিনি।’

তিনি আরও বলেন, ‘১৬ বছর বয়সে বিয়ে দিলেই কোনো মেয়ের বিয়েটা হয় না। সেটা বাল্যবিবাহ হিসেবে গণ্য। আমি চেয়েছিলাম এ বিয়ের বিরুদ্ধে কাজ করতে।’ এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও লেখিকা বেগম রোকেয়ার উদাহরণ টেনে এভ্রিল বলেন, মেয়েরা চাইলে অনেক কিছু করতে পারে।

গণমাধ্যম এড়িয়ে চলা এই সুন্দরী বলেন, ‘আমি ডিভোর্সী, ফাইন, আমি একটা মেয়ে। অ্যাজ এ হিউম্যান আমার রাইট আছে, একটা ইন্টারন্যাশনাল প্ল্যাটফর্মে গিয়ে নিজেকে প্রেজেন্ট করার। কই আমি তো নিজের জন্য কিছু চাইনি! আমি চেয়েছিলাম আপনাদের দেশের মেয়েগুলোকে জাস্ট দেখিয়ে দিতে যে, একটা মেয়ে চাইলে কী কী পারে।’

প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়নের মুকুট ওঠে জান্নাতুল নাঈম এভ্রিলের মাথায়। এরপর থেকে শুরু হয় বিতর্ক। কেননা তার আগে আরেকজনের নাম ঘোষণা করা হয়। যেটাকে আয়োজকরা ‘ভুল’ হিসেবে আখ্যায়িত করেন।

এরপর সম্প্রতি এভ্রিলের বিয়ের খবর সামনে আসে। এরপর আজ ফেসবুক লাইভে ডিভোর্সের কথা স্বীকার করেন। অবশ্য সে ভিডিও রাখেননি তিনি, বক্তব্য শেষ করেই তিনি ভিডিওটি ডিলিট করে ফেলেন।

এনই/এলএ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]