ধানমন্ডিতে স্টার সিনেপ্লেক্সের যাত্রা শুরু, যা বললেন শাকিব-জয়া

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:১৯ পিএম, ২৬ জানুয়ারি ২০১৯

ধানমন্ডির সীমান্ত সম্ভার (প্রাক্তন রাইফেলস স্কয়ার)-এ চালু হলো মাল্টিপ্লেক্স সিনেমা হল স্টার সিনেপ্লেক্স। জমকালো আয়োজনে আজ (২৬ জানুয়ারি) যাত্রা শুরু করলো নতুন সিনেপ্লেক্স।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন তথ্যমন্ত্রী হাসান মাহমুদ, স্টার সিনেপ্লেক্সের চেয়ারম্যান মাহবুব রহমান রুহেল, ঢাকাই সিনেমার নাম্বার ওয়ান নায়ক শাকিব খান, জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান, নির্মাতা ও অভিনেতা তৌকীর আহমেদ, চয়নিকা চৌধুরী, অভিনেত্রী বিপাশা হায়াত প্রমুখ।

স্টার সিনেপ্লেক্সের যাত্রা উপলক্ষে কেক কেটেছেন আমন্ত্রিত অতিথিরা। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার আব্দুল আজিজ, ভাবনা, সোহানা সাবা, নায়ক রোশান, শিমুল খানসহ শো-বিজ জগতের নায়ক-নায়িকা, নির্মাতা, কর্পোরেট ব্যক্তিত্ব, সংবাদমাধ্যমকর্মীসহ অন্যান্য অতিথিরা।

সীমান্ত সম্ভারের দশম তলায় নির্মিত এ সিনেপ্লেক্সে রয়েছে তিনটি হল। আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন নান্দনিক পরিবেশ, সর্বাধুনিক প্রযুক্তিসম্বলিত অ্যাটমস ডলবি সাউন্ড সিস্টেম, সিলভার স্ক্রিনসহ একটি পূর্ণাঙ্গ মাল্টিপ্লেক্সের সব ধরনের সুবিধা থাকছে এখানে।

shakib-2

দেশের কোনো সিনেপ্লেক্সের এটিই হলো প্রথম শাখা। স্টার সিনেপ্লেক্সের চেয়ারম্যান মাহবুব রহমান রুহেল বলেন, অবশেষে আমরা রাজধানীর সীমান্ত সম্ভারে নতুন মাল্টিপ্লেক্স সিনেমা হল চালু করতে পারলাম। এর মধ্য দিয়ে দ্বিতীয় স্টার সিনেপ্লেক্সের যাত্রা শুরু হলো। যা আমাদের পথচলায় নতুন মাত্রা যোগ করলো। দর্শকদের ভালোবাসা-ই আমাদের এ যাত্রায় অনুপ্রেরণা যুগিয়েছে। আমরা শুরু থেকেই দেশের দর্শকদের সিনেমা দেখার নতুন পরিবেশ উপহার দিতে চেয়েছি। তারই ধারাবাহিকতায় এগিয়ে চলছে আমাদের এই প্রয়াস। দর্শকদের ভালোবাসাকে সঙ্গী করে আমরা আরও অনেক দূর যেতে চাই।

শাকিব খান বলেন, ভালো সিনেমা প্রদর্শনের জন্য প্রয়োজন ভালো সিনেমা হল। নতুন স্টার সিনেপ্লেক্স সে অভাব কিছুটা পূরণ করলো। ধানমন্ডির মতো একটি এলাকাতে ভালো একটা সিনেমা হল ছিল না। এবার এ এলাকার মানুষের সিনেমা হলের চাহিদা পূর্ণ করবে নতুন সিনেপ্লেক্স। এর উদ্যোক্তাদের জানায় আমার তরফ থেকে অনেক ভালোবাসা। আশা করি, তারা সিনেমার জন্য এভাবেই কাজ করে যাবেন।

সিনেপ্লেক্সের উদ্বোধন হলো জয়া আহসানের দেবী সিনেমা দিয়ে। জয়া আহসান বললেন, সিনেমা প্রযোজনা করতে গিয়ে সিনেমা হলের প্রযোজনীয়তা আরও বেশি করে অনুধাবন করেছি। আমার আশার আলো দেখালো নতুন এই সিনেপ্লেক্স। এই ধাবাহিকতায় সিনেপ্লেক্স বাড়তে থাকলে অচিরেই দূর হবে আমাদের হল সংকট।'

এমএবি/জেএইচ/এমকেএইচ

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :