জাতিসংঘে বাংলার জন্য ক্যাম্পেইন

সালাহ উদ্দিন মাহমুদ
সালাহ উদ্দিন মাহমুদ সালাহ উদ্দিন মাহমুদ , লেখক ও সাংবাদিক
প্রকাশিত: ০২:৩৫ পিএম, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

ফেব্রুয়ারি বাংলা ভাষা প্রতিষ্ঠার আন্দোলনের মাস। ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি মাতৃভাষা বাংলার জন্য জীবন দিয়েছে রফিক, শফিক, জব্বার, সালাম, বরকতসহ নাম না জানা অনেকেই। পৃথিবীর একমাত্র দেশ বাংলাদেশ; যারা ভাষার জন্য সংগ্রাম করেছে, জীবন দিয়েছে। তাই তো পরবর্তীতে ২১ ফেব্রুয়ারিকে ‘আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস’ হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া হয়। বাংলাদেশের মতো বিশ্বের অন্যান্য দেশেও পালিত হয় দিবসটি।

ভাষার জন্য আমরা গর্বিত। জীবনের বিনিময়ে মাতৃভাষাকে প্রতিষ্ঠিত করতে পেরে আনন্দিত। তবে সময়ের স্রোতে আরো একটি দাবি উত্থাপিত হয়েছে। আর তা হলো- ‘জাতিসংঘে বাংলা চাই’ আন্দোলন। যে আন্দলনের অগ্রভাগে অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কম। প্রতিষ্ঠানটি ১ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু করেছে তাদের অনলাইন ক্যাম্পেইন। তাদের দাবি- জাতিসংঘের সপ্তম দাপ্তরিক ভাষা হিসেবে বাংলাকে দেখতে চাই।

jagonews24

জাগোনিউজ২৪.কম প্রাণ গ্রুপের সহযোগিতায় ক্যাম্পেইনটি শুরু করেছে। বাংলাকে জাতিসংঘের সপ্তম দাপ্তরিক ভাষা হিসেবে গ্রহণ করার দাবিতে চলছে ‘জাতিসংঘে বাংলা চাই’ অনলাইন ক্যাম্পেইন। ১ ফেব্রুয়ারি ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এ ক্যাম্পেইনের শুভ উদ্বোধন করেন। সেদিন সন্ধ্যায় রাজধানীর বাড্ডায় প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের প্রধান কার্যালয়ে কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়। এসময় প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের চেয়ারম্যান ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আহসান খান চৌধুরী, জাগো নিউজের সম্পাদক সুজন মাহমুদ, প্রাণ গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইলিয়াছ মৃধা, প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের বিপণন পরিচালক কামরুজ্জামান কামাল, জাগো নিউজের প্রধান বার্তা সম্পাদক মহিউদ্দিন সরকার, সহকারী সম্পাদক ড. হারুন রশীদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। ক্যাম্পেইনটি চলবে ২৮ ফেব্রুয়ারি রাত ১২টা পর্যন্ত।

এছাড়া অমর একুশে বইমেলায় জাগো নিউজের স্টলে (৬১) চলছে ক্যাম্পেইন। দেশের গুরুত্বপূর্ণ তারকাগণ একাত্মতা প্রকাশ করেছেন। এমনকি মহান ২১ ফেব্রুয়ারির প্রভাতফেরিতেও অংশ নেয় জাগো নিউজ। কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের উদ্দেশে শোভাযাত্রার মাধ্যমে প্রচারণা চালানো হয় ক্যাম্পেইনের। চলে ভোট গ্রহণ। শহরের দেয়ালে দেয়ালে শোভা পায় ‘জাতিসংঘে বাংলা চাই’ লেখা সম্বলিত পোস্টার। এরই সাথে সাথে সারা দেশের বিভিন্ন জেলা-উপজেলা, স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়সহ গুরুত্বপূর্ণ স্থানে চলছে ক্যাম্পেইন। ক্যাম্পেইনে বাংলা ভাষাভাষি মানুষের অভূতপূর্ব সাড়া পেয়েছে জাগো নিউজ।

kurigram-online-voting

ভালো কাজের সঙ্গে সম্পৃক্ততার অংশ হিসেবে জাগো নিউজের এ কর্মসূচি একদিন আলোর মুখ দেখবে এমনটিই প্রত্যাশা আয়োজকদের। সর্বস্তরে বাংলা ভাষার ব্যবহার নিশ্চিত করতেও ব্যাপক ভূমিকা রাখবে ক্যাম্পেইনটি। বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় জাতিসংঘের সদর দপ্তরেও পৌঁছে যাবে এ খবর। কেননা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতোমধ্যে জাতিসংঘের দাপ্তরিক ভাষা হিসেবে বাংলাকে স্বীকৃতি দেওয়ার দাবিতে একাধিকবার প্রস্তাব উত্থাপন করেছেন। বাংলাদেশের জাতীয় সংসদেও এ বিষয়ে প্রস্তাব গৃহীত হয়েছে। এমনকি পশ্চিমবঙ্গ বিধান সভায়ও এ বিষয়ে প্রস্তাব গৃহীত হয়েছে।

জাতিসংঘের ছয়টি দাপ্তরিক ভাষা ইংরেজি, ফ্রেঞ্চ, স্প্যানিশ, মান্দারিন, রুশ ও আরবির সঙ্গে এবার বাংলাকে সপ্তম দাপ্তরিক ভাষা হিসেবে গ্রহণ করার দাবি অযৌক্তিক নয়। বাংলাদেশ ও বাংলাদেশের বাইরে থেকে যেকোনো ব্যক্তি তার নাম এবং ই-মেইল অথবা মোবাইল নম্বর ব্যবহার করে আবেদন (দাবির প্রতি একাত্মতা) করতে পারবেন। কর্মসূচি শেষে জাতিসংঘের মহাসচিব বরারব আবেদন (পিটিশন) পৌঁছে দেওয়া হবে।

make-bangla

ভাষার প্রতি গণমানুষের এ আবেগ এবং হৃদয়মথিত ভালোবাসার জয় হোক। সফল হোক জাগো নিউজের ক্যাম্পেইন। শেষ মুহূর্তে আপনিও অংশ নিতে পারেন এ ক্যাম্পেইনে। সেজন্য আপনাকে www.jagonews24.com/MakeBanglaOfficial এই লিঙ্কে প্রবেশ করে ভোট দিতে হবে। আসুন আমরা প্রত্যেকে যার যার অবস্থান থেকে আবারো স্লোগান তুলি- জাতিসংঘে বাংলা চাই!

এসইউ/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :