সৌদির কাছে অস্ত্র বিক্রি বন্ধের আহ্বান জার্মান গির্জার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:১০ এএম, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৭ | আপডেট: ১১:২১ এএম, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৭

সৌদি আরবের কাছে অস্ত্র রফতানি বন্ধ করার ব্যাপারে সরকারের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে জার্মানির গির্জা থেকে। যৌথ এক সংবাদ সম্মেলনে দেশটির প্রটেস্ট্যান্ট এবং ক্যাথলিকরা জানান, ইয়েমেনের সঙ্কটে সৌদি আরবের সেনাবাহিনীর সংশ্লিষ্টতার মধ্যে তাদেরকে অস্ত্র সরবরাহ বন্ধ করা উচিত।

২০১৩ সালে জার্মান সরকার সৌদি আরবের সঙ্গে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করে। চুক্তি অনুসারে এক বিলিয়ন ডলারের অস্ত্র সৌদির কাছে রফতানির কথা। ২০১৪ সালের জানুয়ারি থেকে এপ্রিল ২০১৭ পর্যন্ত ওই পরিমাণ অস্ত্র সরবরাহের চুক্তি ছিল। এছাড়া যুদ্ধবিমানসহ আরও বেশ কিছু অস্ত্র রফতানিরও চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছিল।

গত সেপ্টেম্বরে ইউরোপের পার্লামেন্টে সিদ্ধান্ত হয়, সৌদির বিরুদ্ধে অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হবে। ইয়েমেনে সৌদি আরব মানবাধিকার লঙ্ঘন করার অভিযোগে এ ধরনের আহ্বান জানানো হয়।

ইতোমধ্যে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ এবং ৫৬টি এনজিও বেশ কয়েকবার দাবি তুলেছে, ইয়েমেনে মানবাধিকার লঙ্ঘনের ব্যাপারে যেন আন্তর্জাতিকভাবে তদন্ত করে দেখা হয়।

অথচ ২০১৫ সালের মার্চ থেকে সশস্ত্র হুথি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে সংঘর্ষ চালিয়ে আসছে সৌদি জোট। সৌদি জোটের দাবি, তারা বেসামরিক কাউকে টার্গেট করেনি।

তবে মানবাধিকার সংগঠনগুলো বলছে, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, হাসপাতাল, বাজার এবং আবাসিক এলাকায় হামলা চলছে।

সূত্র : মিডল ইস্ট মনিটর

কেএ/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :