ফ্রিজ-আলমারি-স্যুটকেসে পরিবারের ৫ জনের লাশ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:০৮ পিএম, ২১ আগস্ট ২০১৮

ভারতের উত্তর প্রদেশের আল্লাহাবাদে সোমবার একটি তালাবদ্ধ বাড়ির ভেতর থেকে একই পরিবারের পাঁচ সদস্যের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এদের মধ্যে তিনজনই শিশু। ওই বাড়িতে এক ব্যক্তির মরদেহ সিলিং ফ্যানে ঝুলন্ত অবস্থায় ছিল।

অপরদিকে, তার স্ত্রীর মরদেহ ফ্রিজের ভেতর, তাদের দুই মেয়ের মধ্যে একজনের মরদেহ স্যুটকেসে এবং অপরজনের মরদেহ আলমারির ভেতরে পাওয়া গেছে। এছাড়া পাশের আরও একটি কক্ষ থেকে ওই দম্পতির আরেক মেয়ের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ বলছে, ওই বাড়িটি ভেতর থেকে অবরুদ্ধ ছিল। এ কারণে দরজা ভেঙে তাদের ভেতরে প্রবেশ করতে হয়েছে। পুলিশ কর্মকর্তা নিতিন তিওয়ারি জানান, ওই বাড়ির কর্তা মনোজ খুশওয়ালা হয়তো তার স্ত্রী এবং তিন মেয়েকে হত্যার পর আত্মহত্যা করেন।

পুলিশ জানিয়েছে, পারিবারিক অশান্তি বা নিজের স্ত্রীর সঙ্গে অন্য কারো সম্পর্ক রয়েছে এমন সন্দেহের জের ধরেই হয়তো মনোজ খুশওয়ালা এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটিয়ে থাকতে পারেন।

গত মাসের প্রথমদিকে ঝাড়খণ্ডের হাজারিবাগে একই পরিবারের ছয় সদস্যদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এদের মধ্যে দু'জনের মরদেহ ঝুলন্ত অবস্থায় ছিল এবং আরও দু'জনের গলাকাটা ছিল। এছাড়া পরিবারের আরও এক সদস্যকে ছাদ থেকে ধাক্কা দিয়ে এবং একটি শিশুকে বিষ প্রয়োগে হত্যা করা হয়।

ওই বাড়ি থেকে একটি সুইসাইড নোট উদ্ধার করা হয় যেখানে লেখা ছিল যে, তাদের ৫০ লাখ টাকা দেনা ছিল। কিন্তু দেনা পরিশোধের কোন উপায় ছিল না বলেই পরিবারের সব সদস্য মিলে এমন ভয়াবহ পরিণতি বরণ করেন।

টিটিএন/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :