বিয়েতে ৪৫২ কোটি টাকার বাংলো পেলেন ঈশা আম্বানি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:১৯ পিএম, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮

এশিয়ার শীর্ষ এবং বিশ্বের ১৮তম ধনী ভারতের মুকেশ আম্বানির একমাত্র কন্যা ঈশা আম্বানির বিয়ে ঘিরে দেশে-বিদেশে চলছে তুমুল আলোচনা। বিলাসবহুল এই বিয়ের খুঁটিনাটি বিষয় নিয়ে গণমাধ্যমে উঠে আসছে নতুন নতুন তথ্য।

আম্বানি কন্যার সঙ্গে আরেক ধনকুবেরের ছেলে পিরামলের বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়েছিল গত সেপ্টেম্বরে। তবে মূল আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয় গত সপ্তাহে জমকালো প্রি-ওয়েডিং অনুষ্ঠানের মাধ্যমে।

প্রি-ওয়েডিং অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছেন হলিউড-বলিউড, ক্রীড়াঙ্গনের শীর্ষ তারকাদের পাশাপাশি দেশি-বিদেশি প্রভাবশালী রাজনীতিকরা। যুক্তরাষ্ট্র থেকে উড়ে এসেছিলেন সাবেক মার্কিন ফার্স্ট লেডি হিলারি ক্লিনটন ও সাবেক মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরিও।

অতিথিদের আনা-নেয়ার জন্য মুকেশ আম্বানি ভাড়া করেছিলেন প্রায় ২০০ বিমান। মুম্বাই এবং রাজস্থানের পাঁচ তারকা সব হোটেল বুকিং করা হয় অতিথিদের জন্য। রাজস্থানে মার্কিন সঙীতশিল্পী বিয়ন্সে মাতিয়েছেন প্রি-ওয়েডিং পর্ব।

অবশেষে বুধবার সাতপাকে বাধা পড়েন ঈশা আম্বানি ও আনন্দ পিরামল। বুধবার উদয়পুরে আম্বানির রাজকীয় বাসভবন অ্যান্টিলিয়ায় সম্পন্ন হয়েছে এই যুগলের বিয়ের অনুষ্ঠান।

isha-ambani-1

বিলাসবহুল এই বিয়ের আগেই নতুন বউ ঈশাকে ৪৫২ কোটি টাকা দামের আস্ত একটি বাংলো উপহার দিয়েছেন তার শ্বশুর ও শাশুড়ি। মুম্বাইয়ের ওরলিতে সমুদ্রের পাড়ে এই বাংলোর অবস্থান। ৫০ হাজার বর্গফুট জায়গাজুড়ে ৫ তলা এই বাড়ি তৈরি করেছে প্রায় দেড় হাজার শ্রমিক ও মিস্ত্রি। বাড়ির ভেতরে মেঝেতে লাগানো হয়েছে সাদা মার্বেল।

মাটির নিচেও রয়েছে দু'টি তলা। যেখানে রয়েছে গাড়ি পার্কিং ব্যবস্থা ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী। ঈশা আম্বানির কাছে যদিও দামি বাড়ি নতুন কিছু নয়। মুম্বাইয়ে মুকেশ আম্বানির বাড়ি অ্যান্টিলিয়া ভারতে তো বটেই বিদেশেও আলোচনার বিষয়।

তবে ঈশা আম্বানির নতুন এই বাড়িও কম সুন্দর নয়। আগে এই বাংলোটি ছিল ইউনিলিভার গোষ্ঠীর মালিকানাধীন। ২০১২ সালে ৪৫২ কোটি টাকায় সেটি কিনে নেয় পিরামল গোষ্ঠী। সেই বাংলো সংস্কারের মাধ্যমে ঝাঁ চকচকে করে তোলা হয়েছে। বিয়ের পর এই বাড়িতেই থাকবেন আনন্দ ও ঈশা।

চলতি বছরের ১৯ সেপ্টেম্বর এই বাংলোয় বসবাসের ছাড়পত্র দিয়েছে বৃহন্মুম্বইপুর নিগম। বাংলোর প্রথম তলে রয়েছে এন্ট্রান্স লবি। তার উপরের তলে রয়েছে লিভিং ও ডায়নিং রুম। তিন তলায় রয়েছে আরও একটি হলঘর, বেডরুম ও সার্কুলার স্টাডিজ রুম।

ঈশা আম্বানির শ্বশুর জয় পিরামলও কম ধনী নন। গোটা বিশ্বে প্রায় ১০০ কোটি টাকার সম্পত্তি রয়েছে। ওষুধশিল্প, মূলধনী ব্যবসা, নির্মাণশিল্প, তথ্য প্রযুক্তি ও কাচ প্যাকেজিং শিল্পে বিনিয়োগ রয়েছে তার। জিনিউজ।

এসআইএস/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :