সেনেগাল উপকূলে নৌকা ডুবে ১৪০ অভিবাসনপ্রত্যাশী নিখোঁজ: জাতিসংঘ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:৪৪ এএম, ৩০ অক্টোবর ২০২০

সেনেগাল উপকূলে নৌকাডুবিতে অন্তত ১৪০ জন অভিবাসনপ্রত্যাশী নিখোঁজ হয়েছেন। বৃহস্পতিবার জাতিসংঘের অভিবাসন সংস্থা এ তথ্য জানিয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, চলতি বছর নৌকাডুবিতে সবচেয়ে বড় প্রাণঘাতী ঘটনা এটাই।

আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএম) জানিয়েছে, নৌকাটিতে অন্তত ২০০ জন যাত্রী ছিলেন। সেনেগালের এমবাউর শহর থকে রওয়ানা দেওয়ার কয়েক ঘণ্টা পরেই নৌকাটিতে আগুন ধরে ডুবে যায়।

বিবৃতিতে আইওএম জানিয়েছে, সেনেগাল ও স্পেনের নৌবাহিনী এবং জেলেরা প্রায় ৬০ জনকে জীবিত উদ্ধার করেছেন। তবে অন্তত ১৪০ অভিবাসনপ্রত্যাশী ডুবে গেছেন।

বেঁচে যাওয়া অভিবাসনপ্রত্যাশীদের জন্য জরুরি ভিত্তিতে সেন্ট লুইসে প্রয়োজনীয় সহায়তা পাঠিয়েছে সেনেগাল সরকার এবং আইওএম।

পশ্চিম আফ্রিকা থেকে ক্যানারি দ্বীপের এই বিপজ্জনক সামুদ্রিক পথটি একসময় দারিদ্র্যের হাত থেকে মুক্তি লাভের আশায় ইউরোপগামী অভিবাসনপ্রত্যাশীদের অন্যতম রুট ছিল। ২০০০-এর দশকের মাঝামাঝি স্পেন পাহারা জোরদার করায় চলাচল কিছুটা কমে যায়। তবে চলতি বছর সেটি আবারও বেড়ে গেছে।

আইওএমের তথ্যমতে, শুধু গত সেপ্টেম্বরেই ৬৬৩ জন অভিবাসনপ্রত্যাশীকে নিয়ে ১৪টি নৌকা ক্যানারি দ্বীপের উদ্দেশে যাত্রা করেছিল। এদের মধ্যে ২৬ শতাংশই নৌকাডুবি বা অন্য দুর্ঘটনার শিকার হয়েছেন।

আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার পরিসংখ্যান থেকে জানা যায়, চলতি বছর প্রায় ১১ হাজার অভিবাসনপ্রত্যাশী ক্যানারি দ্বীপে পৌঁছেছেন। ২০১৯ সালে এই সংখ্যা ছিল ২ হাজার ৫৫৭ জন মাত্র।

চলতি বছর এই রুটে মারা গেছেন অন্তত ৪১৪ জন অভিবাসনপ্রত্যাশী। গত বছর এই সংখ্যা ছিল ২১০ জন।

সূত্র: আল জাজিরা
কেএএ/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]