ঐতিহাসিক তাকসিম স্কয়ারে নতুন মসজিদ উদ্বোধন করলেন এরদোয়ান

মু. তারিকুল ইসলাম
মু. তারিকুল ইসলাম মু. তারিকুল ইসলাম , তুর্কি
প্রকাশিত: ০৯:৪৯ এএম, ২৯ মে ২০২১

তুরস্কের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ শহর ইস্তাম্বুলের প্রাণকেন্দ্র তাকসিম স্কয়ারে একটি নতুন মসজিদ উদ্বোধন করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। শুক্রবার (২৮ মে) মসজিদটি উদ্বোধন করে মুসল্লিদের সঙ্গে জুমাআর নামাজ আদায় করেন। এই মসজিদ উদ্বোধনের মধ্যদিয়ে দীর্ঘদিনের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করলেন দেশটির প্রেসিডেন্ট।

jagonews24

মসজিদ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এরদোয়ান বলেন, ‘আমাদের জাতি আজ তার ১৫০ বছরের পুরানো স্বপ্নে পৌঁছেছে। তাকসিম মসজিদ থেকে আয়া সোফিয়া মসজিদে একটি সালাম পাঠাচ্ছি এবং তাকসিম মসজিদটি ইস্তাম্বুল বিজয়ের ৫৬৮ তম বার্ষিকীর উপহার।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি আশা করি আমাদের মসজিদের ভেতরে জামাত, তার মিনারগুলি থেকে নামাজের ডাক এবং তার গম্বুজ থেকে কুরআনের ধ্বনি কিয়ামত অবধি থাকবে।’

jagonews24

ইমাম খুৎবায় তাকসিম মসজিদ নিয়ে বলেন, ‘আরেকটি দুর্দান্ত আকাঙ্ক্ষা পরিপূর্ণ হলো।’
ইমাম জুমার নামাজ সুরা ফাতিহা (বিজয়) দিয়ে শুরু করেন। যা বিজয় হিসেবে বলা হয়। তুরস্কে অধ্যয়নরত বিভিন্ন দেশের শিক্ষার্থীরাও জুমার নামাজে অংশ গ্রহণ করে ইতিহাসের সাক্ষ্য হয়ে রইলেন।

jagonews24

উল্লেখ্য, তাকসিম স্কয়ার দেশটির একটি ঐতিহাসিক স্থান। ইস্তাম্বুলের তাকসিম বা গেজী পার্ক এলাকাটি সেক্যুলারদের কেন্দ্র হিসেবে পরিচিত। পাশাপাশি এলাকাটি টুরিস্টদেরও অন্যতম গন্তব্য।

সেখানে মূল পয়েন্টে একটি মসজিদ নির্মাণে ষাটের দশক থেকেই পরিকল্পনা চলে আসছে। কিন্তু কখনো সামরিক বাহিনী, কখনো বা আদালত, আবার কখনো বা সাংস্কৃতিক কর্মী বা শিল্পীদের নামে মসজিদ নির্মাণে বিরোধিতা করা হয়েছে।

jagonews24

 ১৯ জানুয়ারি ১৯৯৪ সালে যখন এরদোয়ান ইস্তাম্বুলের মেয়রের নির্বাচনী প্রচারণায় সাংবাদিকদের তাকসিম মসজিদটি কোথায় তৈরি করবেন তার অভিব্যক্তি জানান। তখন তিনি বলেন, ‘আমি আশা করি এই জায়গার ভিত্তি স্থাপন করা আমাদের পক্ষে ভালো হবে।’

jagonews24

২০০২ সালে এরদোয়ানের দল ক্ষমতায় আসলেও সেক্যুলারদের বিরোধিতার কারণে বিলম্ব হয়। ২০১৩ সালেও অনেকে ব্যানার-ফেস্টুন নিয়ে বিক্ষোভ করেন।

jagonews24

অবশেষে এরদোগান তার তাকসিম মসজিদের প্রকল্পটি ২০১৭ সালে ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন। যা গতকাল ইবাদতের জন্য খুলে দেয়া হয়। করোনার কারণে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সেখানে নামাজের আয়োজন করা হয়।

jagonews24

২৮ মিটার প্রস্থের গম্বুজ ও দুটি মিনার বিশিষ্ট মসজিদটিতে প্রায় আড়াই হাজার মানুষ নামাজ আদায় করতে পারবেন।

শুক্রবার জুমাআর নামাজ আদায় করতে আসা মুসল্লিরাও মসজিদ নির্মাণ করায় এরদোয়ানের প্রশংসা করেছেন।

jagonews24

৬০ বছরের বৃদ্ধ মেহমেত আলী কারাহাকিওগলু বলেন, ‘আমরা দীর্ঘদিন ধরে এই মসজিদের জন্য অপেক্ষা করছিলাম। কেউ তা নির্মাণ করতে পারেননি, কেবল এরদোয়ান তা পেরেছেন। তিনি আমার কাছে একজন বিশেষ ব্যক্তি। তাকসিম স্কয়ার এখন দেখতে অনেক সুন্দর। ৫০ বছর আগে তারা এটি নির্মাণ করতে পারতেন।’

ইএ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]