১৮ কেজি ওজন কমিয়ে যেভাবে ফিট হলেন ফারদিন খান

লাইফস্টাইল ডেস্ক
লাইফস্টাইল ডেস্ক লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:২৬ পিএম, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১

বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা ফারদিন খানের বর্তমান ফিটনেস দেখলে যে কেউই অবাক হবেন! তার ফোলা গাল ও বিশাল ভুঁড়ি উধাও! এ যেন নতুন ফারদিন খান। অতিরিক্ত ওজনের কারণে দীর্ঘদিন ধরেই তিনি অভিনয় থেকে দূরে ছিলেন। তবে নতুন লুক ও ফিটনেস নিয়ে আবারও পর্দায় ফিরছেন এই অভিনেতা।

২০১০ সালে ‘দুলহা মিল গ্যায়া’ ছবিতে শেষবার পর্দায় দেখা গিয়েছিল তাকে। মাঝে এক দশকের বিরতি। কারণ তার ওজন অতিরিক্ত বেড়ে যাওয়ার কারণে রোমান্টিক লাভার ইমেজের ফারদিন খানকে চেনা দায় হয়ে গিয়েছিল।

jagonews24

তবে অবাক করা বিষয় হলো, দীর্ঘ বিরতির পর বড় চমক নিয়ে পর্দায় ফিরছেন ফারদিন। ২০১৬ সালে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে ফারদিনের অতিরিক্ত ওজনের বেশ কিছু ছবি। তখন বডি শেমিংয়ের শিকার তখন তিনি জানিয়েছেন মোটা শরীর নিয়ে একেবারেই লজ্জিত নন।

তবে দীর্ঘ ১১ বছর পর ওজন ঝরিয়ে একদম ফিট ফারদিন। ইনস্টাগ্রামে তার বর্তমান ফিটনেসের ছবি দেখে সবাই অবাক হয়ে গিয়েছেন! সবাই ফারদিনের ফিটনেসের তারিফ করছেন। জানা গেছে, ৬ মাসে ১৮ কেজি ওজন ঝরিয়েছেন অভিনেতা।

jagonews24

কীভাবে কামব্যাক করলেন ফারদিন খান?

যদিও তার যাত্রা সহজ ছিলো না। ডায়েট পরিবর্তন, ওয়ার্কআউট রুটিন ছাড়াও, তার পরিবারের সবাই পাশে ছিলেন। বম্বে টাইমসের একটি সাক্ষাৎকারে ফারদিন জানিয়েছেন, তার সন্তানেরা কঠিন সময়ে তাকে সুস্থ থাকতে সাহায্য করে।

তাকে একটি স্বাস্থ্যকর রুটিনে পরিবর্তন আনতে উত্সাহিত করেছিল। একটি টুইটে ফারদিন লিখেছিলেন, ‘একদমই লজ্জিত নয়, কেন লজ্জা পাব? খারাপ লাগছে না, ডিপ্রেশনেও নেই। তবে অন্ধও নই। খুশি? জীবনের সবচেয়ে আনন্দময় অধ্যায়ে আছি’।

jagonews24

তিনি বলেন, ‘আমি তখন পিছিয়ে গিয়েছিলাম। এখন আমি শারীরিকভাবে ২৫ অনুভব করছি। সঠিক ও স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া শুরু করেছি। পাশাপাশি নিয়মিত ওয়ার্কআউটও করছি। ৬ মাসে তিনি ১৮ কেজি ওজন কমিয়েছি, তবে এখনো ৩৫ শতাংশ যাত্রা বাকি। নিজেকে আর ঝরঝরে করতে চাই।’

jagonews24

ফারদিন আর বলেন, ‘আপনি যখন ওয়ার্ক আউট করবেন, তখন প্রাথমিকভাবে দ্রুত কয়েক কেজি ওজন কমে যাবে। তবে ওই ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে আরও বেশি পরিশ্রম করতে হয়। পরবর্তেী ওজন কমানোও হয়ে ওঠে চ্যালেঞ্জের। আমি খুশি যে, নিয়মতান্ত্রিক উপায়ে জীবনধারণের মাধ্যমে ওজন কমাতে সক্ষম হয়েছি।’

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

জেএমএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]