কর্পূর দিয়ে যেভাবে দ্রুত সারাবেন ব্রণ

লাইফস্টাইল ডেস্ক
লাইফস্টাইল ডেস্ক লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৪৯ পিএম, ২৭ জানুয়ারি ২০২২

ব্রণের সমস্যায় নারী-পুরুষ উভয়ই ভোগেন। অনেকের ত্বকেই এক বা দুটি ব্রণ হয়ে দুদিনেই সেরে যায়। আবার কারও কারও মুখভর্তি ব্রণ বের হয়।

যা ত্বকে ব্যথা ও যন্ত্রণার সৃষ্টি করে। এরপর ব্রণের দাগ বসে যায় ত্বকে। এমনকি ত্বক গর্ত পর্যন্ত হয়ে যায় ব্রণের কারণে।

ব্রণ সারাতে কতজনই না কতকিছু ব্যবহার করেন ত্বকে। তবুও ব্রণ সারানো যায় না। এজন্য ভরসা রাখতে পারেন কর্পূরে। সিনামোমাম ক্যাম্পোরা নামের একটি গাছ থেকে পাওয়া যায় কর্পূর।

এতে উপস্থিত অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি বৈশিষ্ট্য স্বাস্থ্যের পাশাপাশি আমাদের সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে বিশেষভাবে কাজ করে। জানেন কি, কর্পূর দিয়ে দ্রুত সারানো যায় ব্রণ। তবে ত্বকের ওপর কর্পূরের ব্যবহারটা একটু আলাদা।

কর্পূর একটি প্রাকৃতিক উপাদান। তাই এটি অন্যান্য কৃত্রিম উপাদানের চেয়ে বেশি শক্তিশালী। জেনে নিন কীভঅবে ব্যবহার করবেন কর্পূর।

কর্পূরকে গুঁড়া করে নিন পাউডারের মতো। এবার কর্পূরের সঙ্গে সঙ্গে সামান্য অলিভ অয়েল মিশিয়ে মিশ্রণটি ব্রণের ওপর লাগান। পুরো মুখে লাগাবেন না।

তৈলাক্ত ত্বকের সমস্যাতেও কর্পূর ব্যবহার করতে পারেন। এজন্য এক চিমটি কর্পূরের গুঁড়ার সঙ্গে এক চামচ মুলতানি মাটি মিশিয়ে নিন। এবার এতে অল্প পরিমাণ গোলাপ জল দিয়ে একটা পাতলা পেস্ট তৈরি করুন।

ফেসপ্যাকটি সারা মুখে লাগান। ১৫ মিনিট রাখার পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই ফেসপ্যাক ওপেন পোর্স‌ের সমস্যা দূর করে। এর পাশাপাশি অতিরিক্ত সিবামকেও নিয়ন্ত্রণে রাখে।

শীতকালে অনেকেরই ত্বকেই দেখা দেয় ফুসকুড়ি। এ সমস্যা দূর করতে নারকেল তেলের সঙ্গে সামান্য কর্পূর মিশিয়ে আক্রান্ত স্থানে ব্যবহার করবেন।

এতে উপস্থিত অ্যান্টিসেপটিক ও অ্যান্টি-প্রুরিটিক বৈশিষ্ট্য ত্বকের জ্বালাভাব নিয়ন্ত্রণ করে। আপনি চাইলে বডি লোশনের সঙ্গে কর্পূরের গুঁড়া মিশিয়ে ব্যবহার করুন।

সূত্র: পিঙ্কভিলা

জেএমএস/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]