‘স্লোগান নয়, সালাম দিন’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:০৭ এএম, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে নেতাদের নামে স্লোগান না দিয়ে ভোটারদের সালাম দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও চসিক নির্বাচনে প্রধান সমন্বয়ক ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন।

সোমবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে মহানগর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি তিনি এ আহ্বান জানান। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে সামনে রেখে নগরের থিয়েটার ইনস্টিটিউট প্রাঙ্গণে এ বর্ধিত সভা আয়োজন করা হয়।

ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘শেখ হাসিনার সরকার চট্টগ্রামে ব্যাপক উন্নয়ন কাজ করেছে। জনগণের কাছে ভোট চায়তে গেলে কোনো স্লোগান দেবেন না আপনারা। সুন্দর করে সালাম দিন, সালাম দিয়ে নৌকা মার্কার পক্ষে ভোট চান’।

প্রসঙ্গত, ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রচার-প্রচারণা প্রায় সব প্রার্থীর পক্ষেই উচ্চস্বরে সাউন্ড বক্স ও মাইক ব্যবহার করতে দেখা গেছে। নিয়ম অনুযায়ী দুপুর ২টার আগে সবধরনের মিছিল, মাইক বা সাউন্ড বক্স ব্যবহার করায় বিধি নিষেধ থাকলেও মানা হয়নি সে নিয়ম। বিভিন্ন প্রার্থীর পক্ষে ভোট চাওয়ার জন্য জনপ্রিয় সব গানের কথা বদলে দিনভর মাইকে বাজানো হয়েছে সেই গান। স্লোগান ও শব্দের ‘অত্যাচারে’ অতিষ্ঠ হয়ে পড়ছিলেন রাজধানীবাসী। বিশেষ করে চরম বিড়ম্বনা পোহায় এসএসসি পরীক্ষার্থীরা, উদ্বিগ্ন ছিলেন তাদের অভিভাবকরাও।

এ প্রেক্ষাপটে আগামী ৯ মার্চ থেকে শুরু হতে যাচ্ছে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক প্রচার প্রচারণা। আর ভোটগ্রহণ হবে ২৯ মার্চ।

ভোটারদের ভোটকেন্দ্রে নিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ বলেন, ‘ভোট কেন্দ্রে ভোটারের উপস্থিতি কম হবে কেন! ভোটারদের ভোটকেন্দ্রে আসতে উৎসাহিত করতে হবে। ইভিএম পদ্ধতিতে যার ভোট সেই দেবেন। এখানে কারচুপির কোনো সুযোগ নেই। আমরা এক সময় ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটকেন্দ্রে আসতে অনুরোধ করেছি, আপনারাও তা করবেন।

jagonews24

ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘আমাদের ধৈর্য ধরতে হবে। আমরা এমন কোনো কাজ করব না যেন দলের ক্ষতি হয়। আমরা যদি ঐক্যবদ্ধ থাকি তাহলে আমাদের হারাতে পারবে না। নৌকা মার্কা দেখে ভোট দিতে হবে। আওয়ামী লীগের সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থীদের পক্ষেও কাজ করতে হবে’।

তিনি বলেন, ‘আ জ ম নাছির উদ্দীন প্রায় পাঁচবছর মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এবার ফের তিনি দলীয় মনোনয়ন চেয়েছিলেন কিন্তু মনোনয়ন পাননি। আ জ ম নাছির এসে মেয়রপ্রার্থী রেজাউল করিমের পক্ষে ভোট চাইছেন, এটাই তো নীতি। আওয়ামী লীগ এ নীতির উপর দাঁড়িয়ে আছে। সুজন (খোরশেদ আলম সুজন), বাচ্চু (আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু), সালামও (আবদুচ ছালাম) মনোনয়ন চেয়েছিলেন তারাও নৌকার পক্ষে কাজ করছেন’।

মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বর্ধিত সভায় বক্তব্য দেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন ও আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়রপ্রার্থী রেজাউল করিম চৌধুরী।

উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম সুজন, ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু, জহিরুল আলম দোভাষ, কোষাধ্যক্ষ আবদুচ ছালামসহ মহানগর আওয়ামী লীগ, বিভিন্ন থানা, ওয়ার্ড ও ইউনিটের প্রতিনিধিরা।

আবু আজাদ/এমআরএম