ভ্যাকসিন দেয়ার পর ক্ষতি হলে দায়ভার সরকারের নয়!

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০১:৫৯ এএম, ১২ জানুয়ারি ২০২১

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে ভ্যাকসিন দেয়ার ক্ষেত্রে গ্রহণকারীর কাছ থেকে অবহিতকরণ সম্মতিপত্র নেয়া হবে। এতে রেজিস্ট্রেশন নম্বর, তারিখ, জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর, নাম, লিঙ্গ (পুরুষ/মহিলা), জন্মতারিখ, দিন, মাস, বছর, বয়স ও ঠিকানা লিপিবদ্ধ করা হবে।

সম্মতিপত্রে থাকবে, করোনা ভ্যাকসিন সম্পর্কিত তথ্য আমাকে অনলাইন ও সামনাসামনি উপায়ে ব্যাখ্যা করা হয়েছে। এই টিকা দেয়ার সময় এবং পরে যেকোনো অসুস্থতা, আঘাত, ক্ষতি হলে তার দায়ভার স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারী বা সরকারের নয়। আমি সম্মতি দিচ্ছি, টিকা গ্রহণ ও এর প্রভাব সম্পর্কিত তথ্যের প্রয়োজন হলে আমি তা প্রদান করব। জানা মতে আমার কোনোরকম ওষুধজনিত অ্যালার্জি নাই। টিকাদান-পরবর্তী প্রতিবেদন/গবেষণা পত্র তৈরির ব্যাপারে অনুমতি দিলাম। আমি স্বেচ্ছায় সজ্ঞানে এই টিকার উপকারিতা ও পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া সম্পর্কে অবগত হয়ে টিকা দেয়ার ব্যাপারে সম্মত আছি।

সোমবার (১১ জানুয়ারি) রাজধানীর মহাখালীতে স্বাস্থ্য অধিদফতরের নতুন ভবনে করোনা ভ্যাকসিন সম্পর্কিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদফতরের টিকা বিতরণ কর্মসূচি কমিটির সদস্য অধ্যাপক শামসুল হক।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, প্রথম পর্যায়ে ৫০ লাখ মানুষকে করোনা ভ্যাকসিন দেয়া হবে। আগামী ২১ থেকে ২৫ জানুয়ারির মধ্যে ভ্যাকসিন দেশে আসবে বলে আশা করা যাচ্ছে। এরই মধ্যে বাংলাদেশ সরকার, ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট এবং বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালসের মধ্যে স্বাক্ষরিত ত্রিপক্ষীয় চুক্তি অনুযায়ী করোনা ভ্যাকসিনের তিন কোটি বা তারও বেশি ডোজ ক্রয়ের কাজ সম্পন্ন হয়।

এমইউ/এসজে

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]