বাসায় ঢুকে খেলনা পিস্তল দেখিয়ে ধর্ষণ, যুবক গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:৩৯ পিএম, ০৮ এপ্রিল ২০২১

ঢাকার কেরানীগঞ্জ এলাকায় বাসায় ঢুকে পুলিশ পরিচয়ে খেলনা পিস্তল দিয়ে ভয় দেখিয়ে এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে মো. রবিন শেখ (২৫) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) সন্ধ্যায় বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেন র‌্যাব-১০ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) এএসপি এনায়েত কবীর সোয়েব।

তিনি বলেন, বুধবার রাতে র‌্যাব-১০ এর একটি বিশেষ আভিযানিক দল কেরানীগঞ্জ মডেল থানাধীন পূর্ব চড়াইল রেখা মেম্বারের গলি এলাকায় বিশেষ অভিযান চালিয়ে রবিনকে গ্রেফতার করে। তিনি নিজেকে বিভিন্ন সময় পুলিশ সদস্য হিসেবে পরিচয় দিতেন। এ সময় তার কাছ থেকে একটি খেলনা পিস্তল, দুটি মোবাইল ফোন ও ধর্ষকের এডিট করা পুলিশের পোশাক পরিহিত ছবি জব্দ করা হয়।

jagonews24

এনায়েত কবীর সোয়েব বলেন, গত দুই মাস আগে রবিন শেখ ও অজ্ঞাতনামা চার-পাঁচজন ওই নারীর বাসায় গিয়ে নিজেদের পুলিশ বলে পরিচয় দেন। এ সময় ভুক্তভোগী নারীকে মিথ্যা মাদক মামলায় ফাঁসানোর ভয় দেখিয়ে তার বাসা থেকে নগদ টাকা ও মূল্যবান জিনিসপত্র জোর করে নিয়ে যান। কিছুদিন পর রবিন শেখ আবারও ওই নারীর বাসায় ঢুকে খেলনা পিস্তল দিয়ে ভয় দেখিয়ে তাকে হাত-পা বেঁধে ধর্ষণ করেন। এ ঘটনার ছবি ও ভিডিও মোবাইলে ধারণ করেন রবিন।

পরে ওই ছবি-ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে ভুক্তভোগী নারীর অসম্মতিতে একাধিকবার শারীরিক সম্পর্ক করতে বাধ্য করেন। একপর্যায়ে অভিযুক্ত ধর্ষকের নজর যায় ভুক্তভোগী নারীর মেয়ের দিকে। রবিন ছবি-ভিডিওর ভয় দেখিয়ে তার মেয়েকেও ধর্ষণের চেষ্টা করলে ভুক্তভোগী নারী র‌্যাবের কাছে অভিযোগ দেন। অভিযোগের ভিত্তিতে রবিনকে গ্রেফতার করা হয়।

র‌্যাবের এই কর্মকর্তা আরও বলেন, রবিনের পুলিশের ইউনিফর্ম পরা বেশকিছু ছবি পাওয়া গেছে। এসব ছবির বিষয়ে আসামি জানান, ছবিগুলো বিশেষ অ্যাপের মাধ্যমে এডিট করে তৈরি করা। তিনি নিজেকে ফেসবুকে পুলিশ হিসেবে পরিচয় দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন মানুষের সঙ্গে নানা অপকর্ম করে আসছিলেন বলেও প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবদে জানা যায়। তার বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় ভুক্তভোগী নারী বাদী হয়ে একটি ধর্ষণ মামলা করেছেন।

টিটি/এমএসএইচ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]