২০ বছরে ঢাকার তাপমাত্রা বেড়েছে প্রায় ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:৩৭ পিএম, ১৯ এপ্রিল ২০২১

গত ২০ বছরে বাংলাদেশের বড় শহরগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেয়েছে ঢাকায়। এই সময়ে ঢাকা শহরের তাপমাত্রা বেড়েছে প্রায় ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

গত ১৫ এপ্রিল বিজ্ঞান, প্রযুক্তি ও চিকিৎসা বিষয়ক আন্তর্জাতিক জার্নাল সায়েন্স ডিরেক্ট ‘সার্ফেস আরবান হিট আইসল্যান্ড ইনটেনসিটি ইন ফাইভ মেজর সিটিস অব বাংলাদেশ: প্যাটার্নস, ড্রাইভার্স অ্যান্ড ট্রোন্ডস’ শীর্ষক এক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়। ঢাকা, চট্টগ্রাম, খুলনা, সিলেট এবং রাজশাহীর তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ করে এ প্রতিবেদন করা হয়।

তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ করে প্রতিবেদনে বলা হয়, গত ২০ বছরের ব্যবধানে বাংলাদেশের মধ্যে সবচেয়ে বেশি তাপ বেড়েছে ঢাকা শহরে। এই সময়ে ঢাকায় দিনের তাপমাত্রা বেড়েছে ২ দশমিক ৭৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তারপরের অবস্থান চট্টগ্রামের। সেখানে এই সময়ে দিনের তাপমাত্রা বেড়েছে ১ দশমিক ৯২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তারপর খুলনায় বেড়েছে ১ দশমিক ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সিলেটে ১ দশমিক ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং রাজশাহীতে দশমিক ৭৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

বিপরীতে এই ২০ বছরে রাতের তাপমাত্রা বাংলাদেশের মধ্যে সবচেয়ে বেশি বেড়েছে চট্টগ্রামে, ১ দশমিক ৯০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তারপরের অবস্থান ঢাকার, এখানে রাতে তাপমাত্রা বেড়েছে ১ দশমিক ৫৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। রাতে সবচেয়ে কম তাপমাত্রা বেড়েছে সিলেটে, দশমিক ১৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

বাংলাদেশের এই পাঁচটি শহরের মধ্যে দিনের তাপমাত্রা বৃদ্ধির দিক থেকে কেবল ঢাকার তাপমাত্রা বৃদ্ধিকেই নেতিবাচক বা অস্বাভাবিক প্রবণতা হিসেবে বিবেচনা করা হয়েছে। অপরদিকে রাতের তাপমাত্রা বৃদ্ধির দিক থেকে কেবল চট্টগ্রামকে নেতিবাচক বা অস্বাভাবিক প্রবণতা হিসেবে বিবেচনা করা হয়েছে প্রতিবেদনে।

এই গবেষণায় আরও বলা হয়েছে, ২০০১ থেকে ২০১৮ সালে বিশ্বে নগরের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে ১৬৮ শতাংশ। তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি নগর বৃদ্ধি পেয়েছে এশিয়া ও আফ্রিকায়।

উল্লেখ্য, নগর ও তার বাসিন্দারা বিশ্বের পরিবেশ পরিবর্তনে মূল ভূমিকা পালন করে থাকে।

পিডি/জেডএইচ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]