ছিনতাইয়ের পর কয়েকবার বিক্রি হয় পরিকল্পনামন্ত্রীর মুঠোফোন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:০৪ পিএম, ১৯ জুন ২০২১ | আপডেট: ০৯:১৩ পিএম, ১৯ জুন ২০২১
ফাইল ছবি

দীর্ঘ ২১ দিনেও পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নানের ছিনতাই হওয়া মোবাইল ফোনটি উদ্ধার হয়নি। এমনকি গ্রেফতার করা যায়নি ছিনতাইকারীকে।

ছিনতাই হওয়া ফোনটি উদ্ধার ও ছিনতাইকারীকে গ্রেফতারে পুলিশের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলে জানিয়েছেন তদন্ত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

তদন্ত সংশ্লিষ্টরা বলছেন, পরিকল্পনামন্ত্রীর ফোনটি এখন পর্যন্ত বেশ কয়েকবার হাত বদল হয়েছে বলে তারা তথ্য পেয়েছেন। প্রথম ছিনতাইকারী ফোনটি একজনের কাছে ১০ হাজার টাকায় বিক্রি করে। পরে তার কাছ থেকে কোনো একজন ক্রেতা ফোনটি ২৫-৩০ হাজার টাকায় কিনেছে। এরপর ওই ফোনটি এখন পর্যন্ত সিমকার্ড দিয়ে চালু করা হয়নি। তাই ফোনটির অবস্থান শনাক্ত করতে পারছে না পুলিশ।

ফোনটি ছিনতাইয়ের পর দ্রুত মন্ত্রী তার সিম কার্ড রিপ্লেস করে নেওয়ায় পুলিশের কাজ আরও জটিল হয়ে পড়েছে।

তারা বলছেন, পুলিশ এখন পর্যন্ত বেশ কয়েকটি আইফোন টেন হ্যান্ডসেট উদ্ধার করে, কিন্তু এর কোনোটিই মন্ত্রীর নয়।

এ বিষয়ে হওয়া মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) জিএম ফরিদুল আলম বলেন, ‘আমরা এখন পর্যন্ত বেশ কয়েকটি আইফোন উদ্ধার করেছি। কিন্তু এর একটিও পরিকল্পনামন্ত্রীর ফোন ছিল না। এখন আমাদের ভরসা ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করা। তাকে গ্রেফতার করলে ফোনটি শেষ কার হাতে গেছে তা হয়তো নিশ্চিত হওয়া যাবে। তাকে গ্রেফতারের জন্য আমাদের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।’

কাফরুল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সেলিমুজ্জামান জাগো নিউজকে জানান, ছিনতাইকারীকে গ্রেফতারে পুলিশের সঙ্গে সরকারের অন্যান্য সংস্থাও কাজ করছে। ওই ছিনতাইকারীকে পাওয়া দুষ্কর হয়ে পড়েছে। এ কারণে বিভিন্ন স্থানে বিভিন্ন সময় অভিযান চলছে। আশা করছি আমরা ফোনটি উদ্ধার করতে পারব।

এর আগে গত ৪ জুন পরিকল্পনামন্ত্রীর ফোন ছিনতাইকারীকে শনাক্ত করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছিলেন ডিএমপির মিরপুর বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) আ স ম মাহতাব উদ্দিন।

তিনি বলেছিলেন, পরিকল্পনামন্ত্রীর ফোন ছিনতাইয়ের ঘটনায় একজনকে আমরা শনাক্ত করেছি। ছিনতাইয়ের ঘটনার আশপাশের লোকজনের সঙ্গে কথা বলে তার সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য পাওয়া গেছে। তার নাম-ঠিকানা ও পরিচয় পুলিশের হাতে এসেছে। তাকে এখন গ্রেফতারে অভিযান চলছে। ছিনতাইয়ের ঘটনায় আশপাশের লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জেনেছি, তিনি রাজধানীর বিজয় সরণি এলাকায় ভাসমান অবস্থায় জীবন যাপন করতেন। বিজয় সরণি এলাকার উড়োজাহাজের ভাস্কর্যের নিচে প্রতি রাতে ঘুমাতেন।

রাজধানীর বিজয় সরণি থেকে ৩০ মে সন্ধ্যায় পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নানের মোবাইল ফোন ছিনতাই হয়ে যায়। বিজয় সরণিতে যানজটে আটকে থাকা অবস্থায় মন্ত্রী এ ছিনতাইয়ের কবলে পড়েন।

এ ঘটনায় থানায় মামলা করেন মন্ত্রীর পিএস।

টিটি/এমএইচআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]