‘সুযোগ পেলেই তারা ইতিহাস বিকৃতি করে’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:১৬ পিএম, ১৭ এপ্রিল ২০১৯

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, বাংলাদেশের ইতিহাসে ১৭ এপ্রিল অনেক গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু যারা স্বাধীনতার চেতনায় বিশ্বাস করে না, তারা ১৭ এপ্রিলকে মুছে ফেলতে চায়।

বুধবার (১৭ এপ্রিল) জাতীয় প্রেস ক্লাবের আবদুস সালাম মিলনায়তনে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ জাসদ আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

আব্দুর রাজ্জাক বলেন, কখনও গণতন্ত্রের লেবাসে বা কখনও সামরিক শাসনের লেবাসে দীর্ঘ ২১ বছর তারা দেশের ইতিহাস বিকৃত করে। আর এই সময়ে ১৭ এপ্রিল যে দেশের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ দিন তার কোনো প্রচার ও প্রচারণা ছিল না।

তিনি বলেন, ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ যখন রাষ্ট্র ক্ষমতায় আসে, তখন আইন করল যে, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি সরকারি সকল অফিসে থাকবে। কিন্তু ২০০১ সালে স্বাধীনতাবিরোধীরা রাষ্ট্র ক্ষমতায় এসে সেই আইন বাতিল করল।

ষড়যন্ত্রের কথা উল্লেখ্য করে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর এই সদস্য বলেন, এখনও বাংলাদেশে ষড়যন্ত্র আছে, সুযোগ পেলেই তারা মিথ্যাচার করে এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ও ইতিহাসকে বিকৃত করে।

বাংলাদেশ জাসদের সভাপতি শরীফ নুরুল আম্বিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন দলটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক করিম সিকদার।

আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন ওর্য়াকার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন, বাংলাদেশ জাসদের কার্যকরী সভাপতি মইনউদ্দিন খান বাদল, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক প্রধান, গণআজাদী লীগ সভাপতি এস কে সিকদার, ন্যাপের প্রেসিডিয়াম সদস্য আব্দুর রশিদ সরকার, গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসন, বাংলাদেশ জাসদের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. মুশতাক হোসেন, মোহাম্মদ খালেদ প্রমুখ।

এইউএ/এমবিআর/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :