রাস্তায় না নামলে সরকার একদলীয় শাসন কায়েম করবে: নুর

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১:১৭ পিএম, ০৯ অক্টোবর ২০২১

রাস্তায় না নামলে সরকার একদলীয় শাসন ব্যবস্থা কায়েম করবে বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সাবেক সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুর।

তিনি বলেছেন,‌ ‌‘আন্দোলন করে চাপে না ফেলতে পারলে বর্তমান সরকার কোনো কিছুকেই গুরুত্ব দেবে না। আমরা যদি রাস্তায় না থাকি, তাহলে এ সরকার আগামীতে দেশে একদলীয় শাসন ব্যবস্থা কায়েম করবে।’

শনিবার (৯ অক্টোবর) বিকেল সাড়ে ৫টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক সেমিনারে এ কথা বলেন নুরুল হক নুর। বাংলাদেশ সিভিল রাইটস সোসাইটির এক যুগ পূর্তিতে ‘বাংলাদেশে গণতন্ত্র ও মানবাধিকার পরিস্থিতি’ শীর্ষক এ সেমিনারের আয়োজন করা হয়।

ডাকসুর সাবেক ভিপি বলেন, ‘আমরা লেখক মুশতাকের মৃত্যু ও কিশোরের নির্যাতন নিয়ে রাস্তায় নেমেছিলাম। তখন আইনমন্ত্রী বলেছিলেন এটা সংশোধন করবে। কিন্তু আমরা আন্দোলন থামিয়ে দেওয়ার পর আর সংশোধন করেননি। এর থেকে এটাই প্রমাণ হয়, রাস্তায় থাকলে তারা আশ্বাস দেন আর না থাকলে চুপ হয়ে যান।’

নুর বলেন, ‘আজকের সারাদেশে ইউপি নির্বাচন হয়েছে। তাদের প্রার্থীরা বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছে। অনেক জায়গাতে নিজের মধ্য থেকেই পরিকল্পনামূলকভাবে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী দাঁড় করিয়ে নির্বাচনকে অংশগ্রহণমূলক প্রমাণ করার চেষ্টা করেছে। যেহেতু বিএনপিসহ অন্যান্য রাজনৈতিক দল নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে না। এটি একটি ভালো দিক। এ সরকারের অধীনে নির্বাচনে অংশ না নিয়ে নির্বাচন কমিশনকে বয়কট করার মধ্যদিয়ে সরকারের প্রতি যে আস্থা নেই, তার প্রমাণ রাজনৈতিক দলগুলো দিতে পারে।’

সচিবালয়, প্রশাসন থেকে শুরু করে সব সরকারি প্রতিষ্ঠানকে দলীয়করণ করা হচ্ছে মন্তব্য করে নুর বলেন, ‘তাদের দলের বাইরের সরকারি গুরুত্বপূর্ণ জায়গাতে লোক খুব কম আছে। কিন্তু তারপরেও আশার বাণী হচ্ছে, প্রশাসনের মধ্যেও অনেক পজিটিভ মানুষ আছে। এভাবে দেশ চলবে এটাও তারা চান না। অভ্যন্তরীণ নানাধরনের কোন্দল তৈরি হচ্ছে। শরিয়তপুরে যুবলীগের একটা সমাবেশ, সেখানে নিজেদের মধ্যেই তারা অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়ার ঘটিয়েছে। ক্ষমতাসীন দলও তো খুব ভালো নেই। তারা নিজেরাই নিজেদের ধ্বংস ডেকে আনবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।’

এমআইএস/এমএএইচ/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]