‘তামিম খেলতে না পারলে তরুণদের এগিয়ে আসতে হবে’

ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:৪৫ এএম, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে অন্তত ৬ সপ্তাহের জন্য মাঠের বাইরে থাকতে হবে দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবালকে। বাঁ হাতের ইনজুরি নিয়েই এশিয়া কাপ শুরু করেছিলেন তামিম। প্রথম ম্যাচেই বল লাগে সেই ইনজুরি আক্রান্ত হাতেই।

ফলাফল মাত্র দ্বিতীয় ওভারেই রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে মাঠের বাইরে তামিম। পরে আবার নেমেছিলেন ব্যাট হাতে। শেষ উইকেটে মুশফিকের সাথে গড়েছেন ৩২ রানের অমূল্য জুটি। কিন্তু সে সময় মাঠে ছিলেন হাতে ব্যান্ডেজ করা। ব্যাটিং গ্লাভস চিড়ে ব্যান্ডেজ করা হাত ঢুকান তার মধ্যে। এক হাতেই নামেন ব্যাট করতে।

শনিবার অতীব প্রয়োজনের মুহূর্তে তামিমের এই কীর্তি জায়গা করে নিয়েছে ক্রিকেটের সাহসিকতা ও আত্মনিবেদনের শ্রেষ্ঠ নজিরগুলোর মধ্যে। কিন্তু এই ভাঙা কবজি নিয়ে তো আর পরের ম্যাচগুলো খেলা যাবে না। দলকে ভাবতে হবে তার বিকল্প, নতুন করে সাজাতে হবে পরিকল্পনা।

তামিম ছাড়াও দলে ইনজুরি সমস্যা রয়েছে মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান ও নাজমুল হাসান শান্তর। এমন গণ ইনজুরির মিছিলে নিজের সেরা পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা যেকোন অধিনায়কের জন্যই কঠিন। এমন অবস্থায় বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাশরাফি আশা করছেন সংকটময় পরিস্থিতিতে এগিয়ে আসবে দলের তরুণ খেলোয়াড়রা।

ম্যাচ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে ইনজুরিতে কারো কিছু করার থাকে না জানিয়ে মাশরাফি বলেন, ‘দেখুন, ইনজুরি হলে তো কিছু করার থাকে না। আমাদের যা আছে তাই নিয়েই সামনে এগিয়ে যেতে হবে। আমি মনে করি এটা তরুণদের জন্য ভাল সুযোগ। আমি এখনো নিশ্চিত নই। কিন্তু তামিম যদি খেলতে না পারে তাহলে বাকি যারা তরুণ আছে, তাদের জন্য খুবই ভাল সুযোগ।’

‘দেশের জন্য এই ধরনের বড় মঞ্চ পারফর্ম করার সুযোগের অপেক্ষায় সবাই থাকে। সবসময় যাদের কাছ থেকে পারফরম্যান্স আশা করা হয় তারা করে আসছে। আজ যেমন মিথুন অসাধারণ ব্যাটিং করেছে, এমন অন্যদিন যদি আরেকজন স্টেপ আপ করে তাহলে দল হিসেবে ভাল খেলা সম্ভব। আমি এখনো আশা করছি সবাই ঠিক থাকবে, ছোটখাটো ইনজুরি রয়েছে, ম্যানেজ করতে পারলে সমস্যা হবে না।’

এসময় তামিমের ইনজুরির ব্যাপারে বিশদ কিছু জানাতে পারেননি অধিনায়ক মাশরাফি। ম্যাচ চলাকালীন প্রাথমিক স্ক্যান করা হলেও সেটি পর্যাপ্ত নয়। আবারো তার হাতে স্ক্যান করে তবেই সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানান বাংলাদেশ অধিনায়ক। তবে তামিমের হাতে যে ছোট চিড় আছে তা নিশ্চিত করেন মাশরাফি।

‘তামিমের আরেকবার স্ক্যান করাতে হবে। আমরা এখনো নিশ্চিতভাবে কিছু বলতে পারছি না। যদি আমরা তামিমকে না পাই তাহলে সেটা অবশ্যই বড় ধাক্কা হবে। তবে আমাদের কয়েকজন প্লেয়ার আছে স্কোয়াডে। দেখা যাক কি হয়। সে এখনো টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে পড়েনি। আমাদের আরও দুই দিন অপেক্ষা করতে হবে, আরেকবার স্ক্যান করাতে হবে তামিমের হাতে। ছোট চিড় আছে, এটা নিশ্চিত। এখন আমাদের দেখতে হবে ইনজুরিটা কতোটা খারাপ।’

এআরবি/এসএএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :