একসঙ্গে পাঁচজনের ‘সেঞ্চুরি’ আজ

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:৩৭ এএম, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮

একসঙ্গে পাঁচজন সেঞ্চুরি করবেন, তাও আবার ওয়ানডে ম্যাচে- এ কথা শুনলে হয়তো প্রচণ্ড আশাবাদী ব্যক্তিও হেসে উড়িয়ে দেবেন। তবে সত্যি এমনটাই ঘটবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে এ ম্যাচে বাংলাদেশের হয়ে মাঠে নামবেন মাশরাফি বিন মর্তুজা, সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও মুশফিকুর রহীম।

আর এ পাঁচজন একসঙ্গে মাঠে নামা মাত্র পূর্ণ হবে তাদের সেঞ্চুরি, একত্রে ম্যাচ খেলার সেঞ্চুরি। এখনো পর্যন্ত বাংলাদেশ ক্রিকেটের ‘পঞ্চপাণ্ডব’ খ্যাত এ পাঁচ ক্রিকেটার একত্রে খেলেছেন ৯৯টি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ। ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচটি তাই পঞ্চপাণ্ডবের একত্রে খেলা শততম ম্যাচ হবে।

পঞ্চপাণ্ডবের মধ্যে সবার পরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নাম লিখিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ২০০৭ সালে তার অভিষেকের পর থেকে এখনো পর্যন্ত ১০ বছর একসঙ্গে খেলছেন এ পাঁচ ক্রিকেটার। পঞ্চপাণ্ডব একত্রে খেলা প্রথম টেস্ট ও প্রথম ওয়ানডে- দুই ফরম্যাটেই জয়ের দেখা পেয়েছে বাংলাদেশ।

পরিসংখ্যান জানান দিচ্ছে এখনো পর্যন্ত পাঁচজন একত্রে খেলেছেন ৯৯টি ম্যাচে। যার মধ্যে ৪৭ ম্যাচে জিতেছে বাংলাদেশ, হেরেছে ৪৮টিতে আর ফল আসেনি ৪টি ম্যাচে। আজকের (মঙ্গলবার) ম্যাচটি জিতে গেলে জয়-পরাজয়ের সংখ্যায় চলে আসবে সমতা।

২০০৯ সালের পর আর টেস্ট খেলা হয়নি মাশরাফি বিন মর্তুজার। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে যেবার শেষবারের মতো টেস্ট খেলেছেন তিনি, সেটিই ছিলো মাহমুদউল্লাহর ক্যারিয়ারের প্রথম টেস্ট। যে কারণে পঞ্চপাণ্ডবের একত্রে খেলা একমাত্র টেস্টই সেটি। সে ম্যাচে ৯৫ রানের বড় ব্যবধানে জিতেছিল বাংলাদেশ।

এছাড়া এখনো পর্যন্ত ওয়ানডে ক্রিকেটে পাঁচজন মিলে খেলেছেন ৬৯টি ম্যাচ। যার মধ্যে পরিত্যক্ত হয়েছে ৩টি ম্যাচ। বাকি ৬৬ ম্যাচের মধ্যে জয়ের সংখ্যা ৩৪টিতে, হার ৩২টিতে। আর টি-টোয়েন্টিতে ২৯ ম্যাচের মধ্যে পরিত্যক্ত হওয়া এক ম্যাচ বাদ দিলে বাকি ২৮ ম্যাচে জয়-পরাজয়ের সংখ্যাটা যথাক্রমে ১২ ও ১৬।

এসএএস/জেআইএম